Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৫ মঙ্গলবার, জুন ২০১৯ | ১০ আষাঢ় ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

আত্মহত্যার আগে চিরকুটে যা লিখে গিয়েছেন অপূর্বর ভাই

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৩ জুন ২০১৯, ০৬:৪৮ PM
আপডেট: ১৩ জুন ২০১৯, ০৬:৪৮ PM

bdmorning Image Preview
সংগৃহীত


আত্মহত্যা করেছেন টিভি পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্বর ছোটভাই দর্পণ দ্বীপ। আজ বৃহস্পতিবার ভোরে মোহাম্মদপুরের নিজ বাসায় আত্মহত্যা করেন দ্বীপ।

আদাবর থানার ডিউটি অফিসার রোমান বলেন, আজ ভোর বেলা তিনি মোহাম্মদপুরের শেখেরটেকের ৬ নং রোডের নিজ বাসায় আত্মহত্যা করেন। সকালে তার বাসায় গিয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে। সে সময় বাসায় দ্বীপের স্ত্রী খালেদা আক্তার (২৮) ও তার শ্বশুর-শাশুড়ী ছিলেন।

নিহত দ্বীপের বাবার উদ্ধৃতি দিয়ে ডিউটি অফিসার রোমান আরও বলেন, সে যেহুত গান করে প্রতিদিনের মত আজও সে মিউজিক রুমে ছিলেন। কাজের সময় ডাকলে দ্বীপ বিরক্তবোধ করবে বলে তার স্ত্রী নিজ রুমে শুয়ে পড়েন। মাঝরাতে ৩:৩০ মিনিটের দিকে স্ত্রীর ঘুম ভাঙলে রুমে গিয়ে দেখেন দ্বীপ সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস দিয়েছেন। ময়না তদন্ত রিপোর্ট পাওয়ার পর বিস্তারিত জানা যাবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

মৃত্যুর আগে দ্বীপ নিজ হাতে লেখা একটি চিরকুট রেখে গিয়েছেন। সেখানে লেখা ছিল ‘আমার আত্মহত্যার জন্য কেউই দায়ী না। জীবনের পদে পদে হারতে হারতে এ দেহ নিয়ে বাঁচতে চাই না। আমি জানি পৃথিবীর কষ্ট কিছু না। মৃত্যুর পর অনেক কষ্ট হবে।’

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে আদাবর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাউসার বলেন, ভোররাতে তিনি মোহাম্মদপুরের শেখেরটেকের ৬ নং রোডের নিজ বাসায় আত্মহত্যা করেন।

দ্বীপের বাবার উদ্ধৃতি দিয়ে ওসি বলেন, ‘আমরা জেনেছি তিনি মানসিকভাবে অসুস্থ ছিলেন।’

জানা গেছে, কিছুদিন আগেও দ্বীপের ‘ভালোবাসি তোমায়’ গানটি প্রকাশিত হয়েছিল। গানটি থেকে ভাল সাড়াও পেয়েছিলেন তিনি। গান গাওয়ার পাশাপাশি বিভিন্ন নাটক ও টেলিছবির আবহ সংগীত করতেন। নিজের ভাই অপূর্ব অভিনীত অনেক নাটকেরও আবহ তৈরি করেছেন তিনি।

তিন ভাইয়ের মধ্যে দ্বীপ সবার ছোট। সবার বড় আব্বাস ফারুক স্বপন এবং মেঝো জিয়াউল ফারুক অপূর্ব। এ বিষয়ে জানতে অপূর্বর সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

Bootstrap Image Preview