Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৩ সোমবার, সেপ্টেম্বার ২০১৯ | ৮ আশ্বিন ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

আগামী ৫ বছরে ৫৮ হাজার ৬২০ কোটি টাকার প্রণোদনা চায় গার্মেন্টস খাত

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৭ মে ২০১৯, ০৮:৫৭ PM
আপডেট: ২৭ মে ২০১৯, ০৮:৫৭ PM

bdmorning Image Preview


আগামী ২০১৯-২০ অর্থ বছরের বাজেটে গার্মেন্টস খাতের জন্য রপ্তানিতে ৫ শতাংশ নগদ সহায়তা দেয়ার দাবি জানানো হয়েছে। টাকার অংকে যার পরিমাণ দাঁড়ায় ১১ হাজার ৭২৪ কোটি টাকা। আর ৫ বছরে এর পরিমাণ দাঁড়াবে ৫৮ হাজার ৬২০ কোটি টাকা।

সোমবার (২৭ মে) রাজধানীর গুলশানে হোটেল আমারিতে গার্মেন্টস খাতের ৩টি সংগঠন আয়োজিত প্রাক বাজেট আলোচনা শীর্ষক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানানো হয়।

বিজিএমইএ, বিকেএমইএ ও বিটিএমএ যৌথভাবে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে। এতে বিজিএমইএ সভাপতি রুবানা হক, বিটিএমএ সভাপতি মোহাম্মদ আলী খোকন এবং বিকেএমইএ ভাইস প্রেসিডেন্ট মুনসুর আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

বিজিএমইএ সভাপতি বলেন, গার্মেন্টস খাত এখন সঙ্কটাপন্ন অবস্থায় রয়েছে। গত এক মাসে ২২টি কারখানা বন্ধ হয়েছে। যেখানে প্রায় সাড়ে ১০ হাজার শ্রমিক চাকরি হারিয়েছে। আমরা ক্রান্তিলগ্নে এসেছি। এখন সহায়তা না দিলে সমস্যায় পড়বো। তাই আগামী ৫ বছর রপ্তানিতে ৫ শতাংশ হারে নগদ সহায়তা দরকার। এটি পেলে আমরা ঘুরে দাঁড়াতে পারব। এটি দিলে ১৪ হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি দিতে হবে সরকারকে। তবে আমরা এখন যে সহায়তা পাই এটি বাদ দিলে ভর্তুকি দাঁড়াবে ১১ হাজার ৭২৪ কোটি টাকা।

এছাড়া ঋণ পুনঃতফসিলিকরণ মেয়াদ দ্বিগুণ করার দাবি জানিয়েছেন বিজিএমইএ সভাপতি রুবানা হক। এ সময় তিনি বলেন, যেসব কারখানা ইচ্ছাকৃতভাবে খেলাপি নয় তাদের উৎপাদন কাজে ফিরে যাওয়া এবং ব্যবসা সচল রাখার জন্য সুযোগ হিসেবে পুনঃতফসিলিকরণের মেয়াদ দ্বিগুণ করা উচিত। এতে কর্মসংস্থান বাড়বে, সর্বোপরি অর্থনীতি সুফল ভোগ করবে। এ জন্য বাজেটে বিশেষ বরাদ্দের প্রত্যাশা করছি আমরা।

Bootstrap Image Preview