Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৮ বুধবার, সেপ্টেম্বার ২০১৯ | ৩ আশ্বিন ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

আজ কমলাপুর থেকে মিলবে যেসব ট্রেনের অগ্রিম টিকিট

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৩ মে ২০১৯, ১২:০২ PM
আপডেট: ২৩ মে ২০১৯, ১২:০৫ PM

bdmorning Image Preview


ঈদুল ফিতরে যাত্রী সেবার কথা মাথায় রেখে প্রতিবছরের ন্যায় এবারও বিক্রি হচ্ছে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট। আজ দ্বিতীয় দিনের মত বিক্রি হচ্ছে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট। তবে বিগত বছরগুলোতে স্টেশনগুলোতে কালোবাজারিদের উৎপাত থাকলেও এবছর জাতীয় পরিচয়পত্রের মাধ্যমে টিকিট কেনার পদ্ধতি চালু করায় শান্তিপূর্ণভাবে চলছে টিকিট বিক্রি।আজ দেওয়া হচ্ছে ১ জুনের আগাম টিকিট।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনের নির্ধারিত ৯টি কাউন্টারে একসঙ্গে টিকিট বিক্রি শুরু হয়।

সরেজমিনে দেখা গেছে, সুশৃঙ্খলভাবেই টিকিট বিক্রি চলছে কমলাপুর রেলস্টেশনে। নির্ধারিত লাইনে দাঁড়িয়ে টিকিট কেনার অপেক্ষা করছেন নাগরিকরা।

ইতিমধ্যে অনেককেই স্বপ্নের বাড়ি যাবার সেই কাঙ্ক্ষিত টিকিট পেয়ে উচ্ছ্বসিত হতে দেখা গেছে। আবার কেউ এখনও লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষারত।

এবার জাতীয় পরিচয়পত্রের মাধ্যমে টিকিট কেনার পদ্ধতি চালু করায় কালোবাজারিদের উৎপাত নেই বললেই চলে। যে কারণে মানুষ স্বাচ্ছন্দ্যে টিকিট কিনতে পারছেন।

এক জাতীয় পরিচয়পত্রের বিপরীতে সর্বোচ্চ চারটি টিকিট বিক্রি করছে রেল কর্তৃপক্ষ।

কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনের ম্যানেজার আমিনুল হক জানিয়েছেন, শান্তিপূর্ণ ও সুশৃঙ্খলভাবে টিকিট বিক্রি চলছে। এটা অব্যাহত রাখতে সবার সহযোগিতা প্রয়োজন। কোনোরকম কালোবাজারির ঠাঁই হবে না। এ বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী আমাদের যথেষ্ট সহযোগিতা করছেন।

এবার জাতীয় পরিচয়পত্র দেখিয়ে টিকিট কেনার নিয়মের কারণে কালোবাজারিদের দৌড়াত্ব না দেখা গেলেও কমলাপুরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনী বেশ তৎপর রয়েছেন।

কালোবাজারি রোধ করতে রেলওয়ে পুলিশ, রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী, আর্মড পুলিশ ও র‌্যাব সক্রিয়ভাবে দায়িত্ব পালন করছেন।

আজ কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে যেসব ট্রেনের টিকিট বিক্রি হচ্ছে:

কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে খুলনাগামী সুন্দরবন এক্সপ্রেস, চিত্রা এক্সপ্রেস, রাজশাহীগামী ধুমকেতু এক্সপ্রেস, বনলতা এক্সপ্রেস, সিল্ক সিটি এক্সপ্রেস, চাঁপাইনবাবগঞ্জগামী পদ্মা এক্সপ্রেস, রংপুরগামী রংপুর এক্সপ্রেস, লালমনিরহাটগামী লালমনি এক্সপ্রেস, পঞ্চগড়গামী দ্রুতযান এক্সপ্রেস, নীলফামারীগামী নীলসাগর এক্সপ্রেস, পঞ্চগড়গামী একতা এক্সপ্রেস ও সিরাজগঞ্জ সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস।

অগ্রিম টিকিট বিক্রয় বিষয়ে তথ্য :

গতকাল থেকে শুরু হয়েছে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রয়। ২২ মে থেকে ২৬ মে পর্যন্ত (৫ দিনব্যাপী) ঢাকার কমলাপুর, বিমানবন্দর তেজগাঁও, বনানী, পুরাতন ফুলবাড়িয়া ও চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশন থেকে সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত বিক্রি চলবে। কাউন্টারে মোট অগ্রিম টিকিটের ৫০ শতাংশ টিকিট বিক্রি করা হবে।

বাকি ৫০ শতাংশ ই-টিকিটে বিক্রি হবে। কাউন্টার এবং ইন্টারনেটে একই সময়ে টিকিট বিক্রি শুরু হবে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ইন্টারনেটে টিকিট বিক্রি না হলে সেই সব টিকিট কাউন্টারে চলে আসবে। কাউন্টার থেকে সাধারণ যাত্রীরা সেই টিকিট কাটতে পারবেন।

আজ ১ জুনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি হচ্ছে। কাল (২৪ মে) ২ জুন, ২৫ মে ৩ জুন এবং ২৬ মে ৪ জুনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি হবে।

কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে দেয়া হবে, ঢাকা থেকে রাজশাহী, খুলনা, পঞ্চগড়, চিলাহাটি, রংপুর, লালমনিরহাট, সিরাজগঞ্জ ও ঈশ্বরদীগামী ট্রেনের টিকিট।

বিমানবন্দর রেলওয়ে স্টেশন থেকে বিক্রি হবে, ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম ও নোয়াখালীগামী ট্রেনের টিকিট। তেজগাঁও রেলওয়ে স্টেশন থেকে বিক্রি হবে ঢাকা থেকে তারাকান্দি, দেওয়ানগঞ্জ ও জামালপুরগামী ট্রেনের টিকিটি।

বনানী স্টেশনে থেকে দেয়া হবে, ঢাকা থেকে নেত্রকোনা ও মোহনগঞ্জগামী ট্রেনের টিকিট। ফুলবাড়িয়া পুরাতন রেলওয়ে স্টেশন থেকে দেয়া হবে, ঢাকা থেকে সিলেট ও কিশোরগঞ্জগামী ট্রেনের টিকিট।

Bootstrap Image Preview