Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৯ মঙ্গলবার, নভেম্বার ২০১৯ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

দুধের সাথে বিষ মিশিয়ে শিশু সন্তানকে হত্যা করে পালালো মা!

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১ মে ২০১৯, ০৯:১৮ PM
আপডেট: ১১ মে ২০১৯, ০৯:১৮ PM

bdmorning Image Preview


বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে সাড়ে তিন বছরের শিশু উম্মে হালিমা ওরফে খাদিজাকে হত্যা করে পালিয়েছে সৎ মা সীমা বেগম (২৮)।

শুক্রবার (১০ মে) সকালে মোরেলগঞ্জ উপজেলার সোনাখালী গ্রামে দুধের সাথে বিষ মিশিয়ে এই খুনের ঘটনা ঘটে। নিহত শিশু হালিমা সোনাখালী গ্রামের আব্দুল হাদি মল্লিকের মেয়ে।

আজ শনিবার সকালে পুলিশ বিষয়টি জানতে পেরে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

নিহত শিশু হালিমার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতালে নিয়ে আসা স্বজনরা জানান, সাড়ে তিন বছর আগে জন্মের সময় মারা যায় হালিমার মা রেশমা বেগম। তারপর থেকে হালিমাকে আমরা কোলে পিঠে করে মানুষ করেছি। এর মধ্যে আব্দুল হাদি আবার বিয়ে করেন সীমা বেগমকে।

তারা জানান, বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন সময় সীমা হালিমাকে মারধর করত। শুক্রবার সকালে বাড়ির উঠনে খেলা করছিল খাদিজা। সেখান থেকে ঘরের মধ্যে ডেকে নিয়ে দুধের সাথে বিষ খাইয়ে হত্যা করে হালিমার লাশ ঘরের পাশের পুকুরে ফেলে দেয়। পরে আমরা খোঁজাখুঁজি করতে করতে পুকুরের মধ্যে হালিমার নিথর দেহ পাই। ততক্ষণে হত্যাকারী সীমা তার কোলের বাচ্চাকে নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে আমরা হালিমাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে দায়িত্বরত চিকিৎসক হালিমাকে মৃত ঘোষণা করেন।

মোরেলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে এম আজিজুল ইসলাম বলেন, নিহত শিশুটির পরিবারের লোকজন বলছে হালিমাকে ওর সৎ মা সীমা হত্যা করেছে। সত্য ঘটনা উদ্ধারে আমরা শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছি। ময়না তদন্ত রিপোর্ট পেলে হত্যার রহস্য উদঘাটিত হবে।

Bootstrap Image Preview