Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৮ রবিবার, আগষ্ট ২০১৯ | ৩ ভাদ্র ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

হিলিতে স্থিতিশীল ভারতীয় পেয়াঁজের দাম, বাড়ছে অন্যান্য পণ্যের দাম

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১ মে ২০১৯, ০২:৫০ PM
আপডেট: ১১ মে ২০১৯, ০২:৫০ PM

bdmorning Image Preview


রমজানের শুরুতে হিলি স্থলবন্দরের পাইকারী দোকানে ভারতীয় আমদানিকৃত পেয়াঁজের দাম না বাড়লেও অন্যান্য পণ্যের দাম এখানে বাড়ছে। আর এ কারণে বিপাকে পড়েছেন সাধারণ ক্রেতারা।

বেড়েছে রমজান নির্ভর পণ্য ছোলা, চিনি ও রসুনের দাম। তবে স্বাভাবিক রয়েছে ভারত থেকে আমদানিকৃত পেঁয়াজের দাম। ২/৩ দিনের ব্যবধানে প্রতিকেজি ছোলায় বেড়েছে ৫ টাকা, চিনিতে ৪ টাকা ও প্রকারভেদে রসুনে বেড়েছে ২০ থেকে ৩০ টাকা।

তবে ক্রেতাদের দাবি, নিয়মিত বাজার মনিটরিং করলে কমে আসবে এসব পণ্যের দাম।

হিলি বাজারের খুচরা বিক্রেতারা জানান, দুই দিন আগে হিলি বাজারে প্রতি কেজি ছোলা বুট ৭০ টাকা দরে বিক্রি হলেও কেজিতে ৫ টাকা বেড়ে আজ তা বিক্রি হচ্ছে ৭৫ টাকা। একইভাবে যে রসুন বাজারে বিক্রি হয়েছে ৪০ টাকা কেজি তা বেড়ে এখন বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৭০ টাকা। চিনির আগের দাম ৪৮ টাকা থাকলেও বর্তমানে তা ৪ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৫২ টাকায়।

হিলি স্থলবন্দর পেয়াঁজ আমদানিকারক সাইফুল ইসলাম জানান, এবার স্বাভাবিক রয়েছে ভারত থেকে আমদানিকৃত পেঁয়াজের দাম। বন্দরে প্রকারভেদে প্রতি কেজি পেয়াঁজ বিক্রি হচ্ছে ১০ থেকে ১১ টাকা দরে।

তবে অতিরিক্ত গরমের কারণে বন্দরে পেঁয়াজের গুনগত মান নষ্ট হওয়ায় পাশাপাশি কমে গেছে পেঁয়াজের বিক্রি। যার কারণে বিপাকে পড়েছেন বন্দরের ব্যবসায়ীরা।

হিলি কাস্টমসের হিসেব মতে, স্থানীয় স্থলবন্দর দিয়ে গত ৬ দিনে ভারতীয় ১৮৮ ট্রাকে ৪ হাজার ৮০০ মেট্রিক টন পেয়াঁজ ভারত থেকে আমদানি হয়েছে।

Bootstrap Image Preview