Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৭ বুধবার, জুলাই ২০১৯ | ২ শ্রাবণ ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

গির্জা ও হোটেলে হামলাকারীরা ছিল উচ্চশিক্ষিত ধনাঢ্য পরিবারের

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৫ এপ্রিল ২০১৯, ০৯:৪৭ AM
আপডেট: ২৫ এপ্রিল ২০১৯, ০৯:৪৭ AM

bdmorning Image Preview


শ্রীলংকায় ইস্টার সানডেতে তিন গির্জা ও হোটেলসহ বিভিন্ন স্থানে আত্মঘাতী হামলার সঙ্গে জড়িতদের সম্পর্কে নানা তথ্য উঠে আসছে তদন্তে। গতকাল বুধবার দেশটির প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে জানিয়েছেন, মোট ৯ জন বোমারু এই হামলা চালায়, তাদের মধ্যে আট জনকে শনাক্ত করা গেছে।

এই হামলাকারীদের অনেকেই ছিলেন উচ্চশিক্ষিত এবং ধনাঢ্য পরিবারের সন্তান। এর মধ্যে একজন অস্ট্রেলিয়ায় পোস্টগ্রাজুয়েট সম্পন্ন করার আগে যুক্তরাজ্যে উচ্চশিক্ষা নিয়েছিল।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের খবরে জানানো হয়, গত রবিবারের ওই হামলার ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৬০ জন সন্দেহভাজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন রনিল বিক্রমাসিংহে। তারা প্রত্যকেই শ্রীলংকার নাগরিক। একই তথ্য জানান শ্রীলংকার প্রতিরক্ষা প্রতিমন্ত্রী রুয়ান জয়াবর্ধনেও। তিনি বলেন, নয় বোমারুর মধ্যে একজন নারীও ছিলেন।

এ ছাড়া ইউনুস ইব্রাহিম নামে শ্রীলংকার এক ধনাঢ্য মসলা ব্যবসায়ীর দুই ছেলে ইলহাম ইব্রাহিম ও ইনসাফ ইব্রাহিম এই আত্মঘাতী হামলার সঙ্গে জড়িত। তারা উগ্রবাদী সংগঠন ন্যাশনাল তৌহিদ জামাতের (এনটিজে) সদস্য। তাদের জড়িত থাকার পেছনে বিদেশি প্রভাব রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। বিবিসি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ইলহাম ও ইনসাফ কলম্বোর দুটো হোটেলে হামলা চালায়। তদন্তকারী একজন কর্মকর্তাকে উদ্ধৃত করে বার্তা সংস্থা এএফপি বলছে, দুই ভাইয়ের নাম-ঠিকানা পাওয়ার পর তাদের বাড়িতে কমান্ডোরা অভিযান চালায়।

এ সময় এক ভাইয়ের স্ত্রী বিস্ফোরণ ঘটায়। বিস্ফোরণে ওই নারী এবং তার দুই ছেলে মারা যায়। সঙ্গে নিহত হয় তিনজন পুলিশ কমান্ডো। কলম্বোতে বিবিসির সাংবাদিক আজাম আমিন বলছেন, তদন্তকারীরা হামলাকারীদের পরিবারের সদস্যদের দিকেও নজর রাখছেন। তাদের গতিবিধি বিশ্লেষণ করছেন। যে ৬০ জনের মতো সন্দেহভাজনকে এখন পর্যন্ত গ্রেফতার করা হয়েছে তাদের মধ্যে হামলাকারী কয়েকজনের স্ত্রীও রয়েছেন।

এরই মধ্যে এই হামলার দায় স্বীকার করেছে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস)। দাবির পক্ষে সংগঠনটির মুখপত্র হিসেবে পরিচিত আমাক নিউজ এজেন্সিতে মঙ্গলবার শ্রীলংকায় হামলাকারীদের একটি ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছে। ভিডিওটিতে একজন বাদে প্রত্যেকের মুখ ছিল কাপড়ে ঢাকা এবং সবার হাতে ছিল ছুরি।

ভিডিওতে তাদের আইএসের শীর্ষ নেতা আবু বকর আল বাগদাদির প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করতে দেখা গেছে। তারা সবাই এনটিজের সদস্য বলে ভিডিওতে উল্লেখ করা হয়েছে। এদিকে মঙ্গলবার জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিয়েছে শ্রীলংকার প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা। ভাষণে তিনি শ্রীলংকার নিরাপত্তা ব্যবস্থা ঢেলে সাজানোর অঙ্গীকার করেছেন। একই সঙ্গে যেসব নিরাপত্তা কর্মকর্তা হামলার ব্যাপারে আগেই গোয়েন্দা তথ্য পেয়েছিল, কিন্তু তা প্রেসিডেন্টকে জানায়নি তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার কথাও বলেন তিনি।

এরই অংশ হিসেবে গতকাল দেশটির প্রতিরক্ষা প্রতিমন্ত্রী সচিব হিমাসিরি ফার্নান্দো এবং পুলিশপ্রধান পুজিত জয়াসুন্দরাকে পদত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন। সিরিসেনার ঘনিষ্ঠ সূত্রের বরাত দিয়ে রয়টার্স এ তথ্য জানিয়েছে। এ ছাড়া শ্রীলংকা পুলিশের মুখপাত্র রুয়ান গুনাসেকেরা জানিয়েছেন, বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৫৯ জনে। এখনো অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

Bootstrap Image Preview