Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৫ মঙ্গলবার, জুন ২০১৯ | ১১ আষাঢ় ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

ইনজামাম এখন ১০ বছরে পা দিল

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮ এপ্রিল ২০১৯, ০৮:৩৩ PM
আপডেট: ০৮ এপ্রিল ২০১৯, ০৮:৩৩ PM

bdmorning Image Preview


পৃথিবীতে ৯ বছর সুস্থ স্বাভাবিকভাবে কাটিয়ে দিল বিশ্বের প্রথম ক্লোন উট ইনজাজ। আরবি শব্দ 'ইনজাজ' এর অর্থ 'অর্জন'। আজ ৮ এপ্রিল তার ১০ম জন্মদিন। ২০০৯ সালের এই দিনে দুবাইয়ের রিপ্রডাক্টিভ বায়োটেকনোলজি সেন্টারে ৫ বছরের গবেষণার ফল হিসেবে তার জন্ম হয়েছিল। ইন-ভিটরো ফার্টিলাইজেশন (আইভিএফ) এবং সোমাটিক সেল নাকলার ট্রান্সফার টেকনোলজির (ক্লোনিং) সফল প্রয়োগ করা হয় ইনজাজের ওপর।

ইনজাজ একটি মাদী উট। তাকে ক্লোনিংয়ের মাধ্যমে সফলভাবে পৃথিবীতে এনেছেন দুবাইয়ের রিপ্রোডাকটিভ বায়োটেকনোলজি সেন্টারের সায়েন্টিফিক ডিরেক্টর ড. নিসার আহমেদ ওয়ানি। একটি স্বাভাবিক উট সাধারণত ৪০ বছর বাঁচে। সেদিক দিয়ে ক্লোন তার জীবনের চার ভাগের একভাগ কাটিয়ে ফেলেছে। শুধু তাই নয়; সে গর্ভবতীও হয়েছিল এবং দুটি সুস্থ বাচ্চাও প্রসব করেছে।

ড. নিসার ওয়ানি বলেছেন, 'ইনজাজ আমাদের প্রথম সফল ক্লোন করা উট। আর দশটি উটের মতোই সুস্থ এবং স্বাভাবিকভাবে গত ১০ বছর সে কাটিয়ে দিয়েছে। স্বাভাবিক জৈবিক উপায়েই সে দুটি সুস্থ বাচ্চার জন্ম দিয়েছে। তার দশম জন্মদিন আমরা কেক কেটে উদযাপন করব। শুভ জন্মদিন ইনজাজ।'

দুবাইয়ের ওই গবেষণাগারে ইনজাজই একমাত্র ক্লোন উট নয়; নিয়মিতভাবেই উটের ক্লোনিং করেন সেখানকার বিজ্ঞানীরা। ড. নিসার ওয়ানির ভাষায়, 'ক্লোনিংয়ের মাধ্যমে আমরা কোনো প্রাণীর হুবহু নকল তৈরি করে দিতে পারি। এই প্রযুক্তি বিশেষ করে রেসের উটগুলোর জন্য খুব কাজের। ক্লোনিংয়ের মাধ্যমে আমরা দুর্দান্ত রেসার কোনো উটের হুবহু রেপ্লিকা বানাতে পারি। আমাদের রিসার্চ সেন্টারে গত ১০ বছরে অর্ধশতাধিক উট ক্লোন করেছি। যার অনেকগুলোই ব্যক্তিগত অর্ডার ছিল।'

Bootstrap Image Preview