Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৫ শনিবার, মে ২০১৯ | ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

বাংলাদেশিসহ ৪ লক্ষাধিক অভিবাসীকে গ্রীন কার্ড দিতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র!

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৩ মার্চ ২০১৯, ১০:৪০ PM
আপডেট: ১৩ মার্চ ২০১৯, ১০:৪০ PM

bdmorning Image Preview
সংগৃহীত ছবি


বিপুল সংখ্যক বাংলাদেশিসহ ৪ লক্ষাধিক অবৈধ অভিবাসীকে শর্তসাপেক্ষে গ্রিন কার্ড প্রদানের একটি বিল ১২ মার্চ মঙ্গলবার উঠেছে মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদে। ‘দ্য ড্রিম এ্যান্ড প্রমিজ এ্যাক্ট’ (the Dream and Promise Act,” H.R. 6) শিরোনামে এই বিলটি উপস্থাপন করেছেন ডেমক্র্যাটিক পার্টির ৩ কংগ্রেসওম্যান। 

তারা হলেন নিউইয়র্কের নিদিয়া ভ্যালেস্কুয়েজ (Nydia Velázquez) এবং ইয়েভেটি ডি ক্লার্ক (Yvette Clarke)ও ক্যালিফোর্নিয়ার লুসিলে য়বেল-এলার্ড (Lucille Roybal-Allard)। 

শিশুকালে মা-বাবার সাথে বেআইনি পথে যুক্তরাষ্ট্রে আসার পর যারা বৈধতা পায়নি, যদিও আমেরিকার আলো-বাতাসেই তারা বড় হয়েছে এবং উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করেছে- এমন ৩৬ লাখের অধিক তরুণ-তরুণীকে ড্রিমার বলা হয়। সেই ড্রিমারদের বহিষ্কারের নির্দেশ প্রত্যাহার করেছিলেন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। 

পরবর্তীতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এসে সেই প্রটেকশন অর্ডার উঠিয়ে নেয়ার বিশেষ আদেশ জারি করেন। সেই আদেশ বহাল হবার আগেই উচ্চতর আদালতের স্থগিতাদেশ জারি হলেও সংশ্লিষ্টদের মধ্যে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠার অবসান ঘটেনি। 

উত্থাপিত বিলে আরও ৩ লক্ষাধিক অভিবাসী রয়েছেন সেন্ট্রাল আমেরিকা, আফ্রিকা এবং দক্ষিণ এশিয়ার নেপালের (El Salvador, Haiti, Honduras, Nepal, Nicaragua, Somalia, Sudan, South Sudan, Syria, and Yemen)। 

এসব দেশে দাঙ্গা-হাঙ্গামা এবং প্রাকৃতিক দুর্যোগের পরিপ্রেক্ষিতে এসব লোকজন নিরাপদ আশ্রয়ের সন্ধানে বেআইনিপথে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি দিয়েছেন কিন্তু বৈধতা পাননি। এদেরকে নিজ নিজ দেশে ফেরত পাঠালে অমানবিক পরিস্থিতির মধ্যে নিপতিত হবেন আশংকায় প্রেসিডেন্ট ওবামা টিপিএস(Temporary Protected Status ) প্রোগ্রাম ঘোষণা করেন। সেটিও উঠিয়ে নেয়ার নির্বাহী আদেশ জারি করেছেন ট্রাম্প। সেই আদেশও ঠেকানো হয়েছে উচ্চ আদালতের মাধ্যমে। 

এই বিল সম্পর্কে প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সী পেলসী বলেছেন, ডেমক্র্যাটরা সংখ্যাগরিষ্ঠ বিধায় প্রতিনিধি পরিষদে তা পাস হলেও রিপাবলিকান শাসিত সিনেটে পাস হবার সম্ভাবনা ক্ষীণ। তবে আমরা চাচ্ছি এর সমর্থনে ব্যাপক জনমত গড়তে, যার ঢেউ লাগবে সামনের বছরের জাতীয় নির্বাচনে। কংগ্রেসের উভয় কক্ষ ডেমক্র্যাটদের নিয়ন্ত্রণে এলে অবৈধ অভিবাসীদের দুশ্চিন্তার অবসানের পথ সুগম হবে বলে মনে করছেন ডেমক্র্যাটরা। 

এর বাইরেও লক্ষাধিক বাংলাদেশিসহ প্রায় সোয়া কোটি বিদেশী রয়েছেন অবৈধ অভিবাসী হিসেবে। এরমধ্যে যারা কোন অপরাধে লিপ্ত নেই এবং যারা নিয়মিতভাবে কাজ করছেন ও ট্যাক্স দিচ্ছেন, তাদেরকে গ্রীন কার্ড প্রদানের বিল এর আগে ডেমক্র্যাট শাসিত প্রতিনিধি পরিষদে পাস হলেও রিপাবলিকানদের সমর্থন পায়নি।

Bootstrap Image Preview