Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২১ বুধবার, আগষ্ট ২০১৯ | ৫ ভাদ্র ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

কমেছে পেয়াঁজের আমদানি, তিনদিনের ব্যবধানে কেজিতে বেড়েছে ২ টাকা

সোহেল রানা, হিলি (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ
প্রকাশিত: ১০ মার্চ ২০১৯, ০৮:৪১ PM
আপডেট: ১০ মার্চ ২০১৯, ০৮:৪১ PM

bdmorning Image Preview


হিলি স্থলবন্দর দিয়ে চাহিদার তুলনায় ভারত থেকে পেয়াঁজ কম আমদানি হওয়ায় আবারো বেড়েছে ভারত থেকে আমদানিকৃত পেয়াঁজের দাম। তিনদিনের ব্যবধানে প্রতি কেজি পেয়াঁজের দাম বেড়েছে দেড় থেকে ২ টাকা। 

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়,বন্দরের গত তিনদিন আগে প্রতি কেজি পেয়াঁজ প্রকারভেদে ১১ থেকে ১২ টাকা দরে বিক্রি হলেও বর্তমানে তা বিক্রি হচ্ছে ১৩ থেকে ১৪ টাকা প্রতি কেজি দরে।

বন্দরের পেয়াঁজ আমদানিকারক আলহাজ্ব সাইফুল ইসলাম জানান, দেশের বাজারে দেশিয় পেয়াঁজের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে আর যে কারণে ভারত থেকে আমদানি করা পেয়াঁজের চাহিদা দেশের বাজারে কমেছে। এছাড়াও আমরা গত মাসের শেষ সপ্তাহে বেশি দামে পেয়াঁজ আমদানি করে আমাদের কম দামে বিক্রি করতে হয়েছে। আর যে কারণে আমরা আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছি।

এসব কারণে ভারত থেকে পেয়াঁজ আমদানি কমে দিয়েছি। যার ফলে বন্দরের বাজারে পেয়াঁজের দাম একটু বেড়েছে। তবে আমদানি বাড়লে পেয়াঁজের দাম আবারো কমে আসবে। 

বন্দরের আর এক পেয়াঁজ আমদানিকারক আলহাজ্ব বাবলুর রহমান জানান, দেশের বাজারে আমদানিকৃত পেয়াঁজের চাহিদা না থাকায় আমরা আমদানি কমে দিয়েছি। আগে এই বন্দর দিয়ে প্রতিদিন ৬০ থেকে ৭০ ট্রাক করে পেয়াঁজ আসতো হিলি পোর্টে।এখন ১৫ থেকে ২০ গাড়ি পেয়াঁজ আমদানি হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (৭ মার্চ) মাত্র ১৫ গাড়ি পেয়াঁজ আমদানি হয়েছে। পেয়াঁজের বাজার যা ছিল তার থেকে দেড় দুই টাকা বেশি দরে বিক্রি হচ্ছে। আমদানি বেড়ে গেলে পেয়াঁজের দামও কমবে। 

পেয়াঁজ কিনতে আসা মামুন নামের এক ব্যবসায়ী বলেন, আমরা গত তিনদিন আগে এই পোর্ট থেকে কম দামে পেয়াঁজ কিনে নিয়ে গেছি। আজ এসে শুনলাম দেড় থেকে দুই টাকা কেজিতে দাম বেড়েছে। দাম বেশি হওয়ায় পেয়াঁজ কিনতে একটু সমস্যা হচ্ছে। কম দাম থাকলে আমাদের জন্য একটু ভালো হয়।

হিলি কাষ্টমস তথ্যমতে, চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহের ৬ কর্মদিবসে ভারতীয় ১১৮ ট্রাকে ২ হাজার ৩'শ ৬০ মেট্রিক টন পেয়াঁজ আমদানি হয়েছে। যা আগের সপ্তাহের থেকে অনেকটাই কম।


 

Bootstrap Image Preview