Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৫ শনিবার, মে ২০১৯ | ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

ইউনিস্যাবের একুশে শিশু উৎসব উদযাপন

রাবি প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ২২ ফেব্রুয়ারী ২০১৯, ১০:৩৪ AM
আপডেট: ২২ ফেব্রুয়ারী ২০১৯, ১০:৩৪ AM

bdmorning Image Preview


আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসকে ভিন্নমাত্রায় উদযাপন করতে রাজশাহীতে ‘একুশে শিশু উৎসব ২০১৯’ অনুষ্ঠিত হয়েছে। জাতিসংঘ ছাত্র ও যুব সংস্থা বাংলাদেশ (ইউনিস্যাব)-রাজশাহী বিভাগীয় শাখা এ উৎসবের আয়োজন করেন। 

বৃহস্পতিবার (২১ ফেব্রুয়ারি)  সকাল ১০টায় রাজশাহীর ভদ্রা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে উৎসবের উদ্বোধন করেন ইউনিস্যাব রাজশাহী বিভাগীয় শাখার আঞ্চলিক পরিচালক কামারুজ্জামান সায়েম।

শিশুদের মাতৃভাষায় শ্রদ্ধাশীল করতে ও শিশুদের মাঝে মাতৃভাষার চর্চা সমৃদ্ধির গুরুত্বকে ছড়িয়ে দিতে প্রথমবারের মত ইউনিস্যাব এ উৎসবের আয়োজন করেন। উৎসবের বিভিন্ন পর্যায়ের মধ্যে অন্যতমগুলো হলো পরিচয়পর্ব, মজায় মজায় একুশকে  জানি, মাতৃভাষা ও একুশ, প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনী, শব্দ খেলা প্রতিযোগিতা, একুশের গান, একুশের কবিতা, কুইজ ও এক কথায় উত্তর দাও প্রতিযোগিতা প্রভৃতি।

মজায় মজায় একুশকে জানি সেগমেন্ট এ ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনের পেছনের ইতিহাসগুলোকে অত্যন্ত সহজ, আকর্ষণীয় ও শিশু বান্ধব করে উপস্থাপন করেন ‘একুশে উৎসব ২০১৯’ এর আহ্বায়ক ওয়াহিদ-উজ-জামান সিফাত। শব্দ খেলা প্রতিযোগিতায় বাংলা ভাষায় ব্যবহৃত বিভিন্ন পারিভাষিক শব্দের বাংলা মূলশব্দের সন্ধান করা হয়। বিজয়ী প্রতিযোগীদের তাৎক্ষণিক উপহার প্রদান করা হয়।

উৎসবের সমাপনী পর্যায়ে বক্তৃতায় প্রধান অতিথি ভদ্রা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা  সুলতানা শাবানাসহ উপস্থিত ইউনিস্যাব রাজশাহী বিভাগীয় শাখার কার্য-নির্বাহী সদস্যরা একুশের চেতনায় সকল তরুণ প্রাণকে উজ্জীবিত হবার অনুপ্রেরণা প্রদান, একুশকে ধারণ করে মাতৃভাষার সমৃদ্ধি অর্জনের উপযুক্ত উপায় এবং এই কার্যে শিশুদের ভূমিকা বিষয়ে শিশুদের বিভিন্ন উৎসাহমূলক উপদেশ দেন। ‘হিপ-হপ-টিপ-টপ’ নামক আকর্ষণীয় সেশনের মাধ্যমে বৃহস্পতিবার বিকেলে উৎসবের সমাপ্তি ঘটে।

Bootstrap Image Preview