Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৩ বৃহস্পতিবার, মে ২০১৯ | ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

হাসপাতালে স্ত্রীর লাশ রেখে পালালেন স্বামী

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৯, ১১:৪০ AM
আপডেট: ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৯, ১১:৪০ AM

bdmorning Image Preview
সংগৃহীত


স্বামীর নির্যাতন সইতে না পেরে বরগুনায় শিল্পী নামে এক নারী আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। তবে নিহতের স্বজনরা দাবি করেছে শিল্পীকে হত্যা করে মুখে বিষ ঠেলে দেয়া হয়েছে। ওই নারী চার সন্তানের মা।

বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় নিহতের স্বামী বরগুনা সদর উপজেলার বুড়িরচর ইউনিয়নের চরকগাছিয়া এলাকার বাসিন্দা মো. ফারুকের বিরুদ্ধে আত্মহত্যায় প্ররোচণার মামলা করা হয়েছে।

গৃহবধূর স্বজন ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, কয়েকদিন আগে গৃহবধূ শিল্পীর বোন মাজেদা বিদেশ থেকে দেশে ফিরে তাদের বাড়ি বেড়াতে আসেন। এ সময় শিল্পীর স্বামী ফারুক মাজেদার কাছে ৫০ হাজার টাকা ধার চান। কিন্তু মাজেদা এ টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে ফারুক ও শিল্পীর মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এ ঘটনা দেখে বোনের বাড়ি থেকে চলে যান মাজেদা। এরই জের ধরে বুধবার বিকেলে ফারুক তার স্ত্রী শিল্পীকে মারধর করেন। এক পর্যায়ে শিল্পী মৃত ভেবে মুখে বিষ ঢেলে হত্যা করেন ফারুক। পরে ঘটনাটি এলাকায় জানাজানি হলে ফারুক শিল্পীকে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসেন। কিন্তু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শিল্পী মারা গেলে পালিয়ে যান ফারুক।

এদিকে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসক তানভীর শাকিল জানান, শিল্পীর পেট থেকে কিটনাশক বের করা হলেও তাকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি।

তিনি আরও বলেন, যে পরিমাণ কিটনাশক তার পেট থেকে বের করা হয়েছে বা তার পেটে যে পরিমাণ কিটনাশকের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে, কেউ স্বেচ্ছায় পান না করলে কারো পক্ষে এতটা খাওয়ানো সম্ভব নয়।

বরগুনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবির মোহাম্মদ হোসেন বলেন, এ ঘটনায় আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে মামলা নেয়া হয়েছে। অভিযুক্তকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Bootstrap Image Preview