Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৮ সোমবার, ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | ৬ ফাল্গুন ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

‘ডিজিটাল তথ্যসেবা’ শুধু নামেই

সেনবাগ প্রতিনিধি:
প্রকাশিত: ১২ ফেব্রুয়ারী ২০১৯, ০৪:২৪ PM
আপডেট: ১২ ফেব্রুয়ারী ২০১৯, ০৪:২৪ PM

bdmorning Image Preview


ইউনিয়ন পরিষদ দেশের প্রাচীনতম একটি স্থানীয় সরকারী প্রতিষ্ঠান। এটি তৃণমূল পর্যায়ে জনগণের সবচেয়ে কাছের সরকার বলে পরিচিত। কর্তৃপক্ষের উদাসীনতা ও অব্যবস্থাপনার কারণে নোয়াখালী জেলার প্রায় কয়েকটি জেলা, উপজেলার ও অধিকাংশ ইউনিয়ন পরিষদের ওয়েবসাইটে সঠিক কোন তথ্য নেই।

ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে যখন এগিয়ে চলছে দেশ, তখনই থেমে আছে জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়নের অনলাইন তথ্য বাতায়নগুলো। ফলে বিশ্বায়নের ডিজিটাল যুগে এসেও সমাজের সচেতন মহল এইসব তথ্য সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। অনেকেই বলছেন ডিজিটাল তথ্যসেবা শুধু নামেই, ওয়েবসাইটে ঢুকলে কোন কিছুই পাওয়া যায় না।

জানা গেছে, নোয়াখালীর জেলার ৯টি উপজেলা মোট ৯১টি ইউনিয়ন পরিষদ রয়েছে। প্রতিটি বিভাগের আলাদা আলাদা তথ্য বাতায়ন থাকলেও সেখানে নেই সর্বশেষ আপডেট। পুরনো বা দীর্ঘদিন আগে আপলোড করা তথ্য দিয়েই চলছে তথ্য বাতায়নগুলো।

জেলার বেশ কয়েকটি ওয়েবসাইট ভিজিট করে জানা গেছে, কয়েকটি ওয়েবসাইটে কিছুটা আপডেট লক্ষ্য করা যায়। এ ছাড়া প্রায় সবগুলো বিভাগের ওয়েব সাইট অনলাইনে আপডেট নেই।

বর্তমান সরকার ইউনিয়ন পরিষদের ওয়েবসাইট কার্যক্রম ২০১০ সালের ১১ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী তার কার্যালয় থেকে এবং নিউজিল্যান্ডের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচির (ইউএনডিপি) প্রশাসক মিস হেলেন ক্লার্ক  ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে একযোগে সারা দেশের সকল ইউনিয়ন পরিষদে একটি করে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার (ইউডিসি) উদ্বোধন করেন। প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদে স্থাপিত তথ্য-প্রযুক্তিভিত্তিক কেন্দ্র ইউডিসি পরিষদকে নতুন মাত্রা প্রদান করে।

কিন্তু উদ্বোধনের ৮ বছরের পরেই নোয়াখালী জেলার সবকটি উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদের তথ্য  সেবা কেন্দ্র থেকে সাধারণ মানুষ তথ্য পাওয়া থেকে বঞ্চিত রয়েছে।

জানা যায়, জেলার বিভিন্ন উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদের নিজস্ব ওয়েবসাইটে সুবিধাভোগীদের তালিকা ভিজিএফ, অতিদরিদ্রদের নামের তালিকা, ভিজিডি কার্ড, প্রতিবন্ধী ভাতা, বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিষয়ক, ত্রাণ ও পুনর্বাসন কমিটি, হতদরিদ্রের তালিকা, মহিলা বিষয়ক মাতৃত্বকালীন ভাতা, সমাজসেবা বিষয়ক মুক্তিযোদ্ধা ভাতা, প্রতিবন্ধী ছাত্র-ছাত্রী ভাতা, একটি বাড়ি একটি খামার, বিআরডিবি, প্রবাসীদের তালিকা, মুক্তিযোদ্ধার তালিকা, হাটবাজারের তালিকা, পূর্বতন ও বর্তমান চেয়ারম্যানের তালিকা, মেম্বারগণের তালিকা, গ্রাম পুলিশগণের তালিকা, কোন গ্রামে কত লোক সংখ্যার তালিকা থাকার কথা। কিন্তু জেলার গুটিকয়েক ইউনিয়ন ছাড়া অন্য সব ইউনিয়ন পরিষদের ওয়েবসাইটে এসবের কোন তথ্য হালনাগাদ করা নেই।

বেশীরভাগ ক্ষেত্রে বিভিন্ন অনিয়মের কারনে ইউনিয়ন কতৃর্পক্ষগুলো এইসব তথ্য ওয়েব সাইটে দেওয়ার কথা থাকলেও তা দিচ্ছে না, কারণ সচেতন মানুষ তাদের তার স্ব স্ব গ্রামের কারা পাচ্ছে ভাতার কার্ডগুলো, কেউ কোনো ভাবে অনিয়ম করছে কিনা তা ওয়েবসাইটে ডুকে দেখবে তাই সচেতন মানুষ যেন এইসব না দেখে এজন্য তারা এইসব তথ্যগুলো আপডেট দেয় না।

Bootstrap Image Preview