Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৫ রবিবার, ডিসেম্বার ২০১৯ | ১ পৌষ ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

তুরাগ তীরে যেভাবে ইজতেমার প্রস্তুতি নিচ্ছে তাবলিগের দুই পক্ষ

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৯, ০৮:৫৩ PM
আপডেট: ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৯, ০৮:৫৩ PM

bdmorning Image Preview
সংগৃহীত ছবি


আগামী ১৫ থেকে ১৮ ফেব্রুয়ারি টঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরে চার দিনব্যাপী বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হবে। তাবলিগ জামাতের লাখ লাখ মুসল্লি এতে অংশগ্রহণ করবেন। অবশেষে তাবলীগ জামাতের দু’পক্ষের দ্বন্দ্বের অবসানে তাবলিগের দু’পক্ষ আলাদাভাবেই ইজতেমার প্রস্তুতি নিচ্ছে। চারদিনে অনুষ্ঠিতব্য বিশ্ব ইজতেমার প্রথম দুইদিন ইজতেমা পরিচালনা করবেন মাওলানা জুবায়ের। শেষের দুদিন ইজতেমার দায়িত্বে থাকবেন সৈয়দ ওয়াসিফুল ইসলাম। চারদিন টানা ইজতেমা হলেও দুপক্ষ আলাদাভাবেই ইজতেমায় অংশ নেবে।

বুধবার নিজ অনুসারীদের উদ্দেশে আলাদাভাবে চিঠি ইস্যু করেছে তাবলিগের সাদ বিরোধী ও সাদের অনুসারীরা।

মাদ্রাসা উলুমি দ্বীনিয়া মালওয়ালী মসজিদের প্যাডে মাওলানা জুবায়ের স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়, ‘আপনাদের খেদমতে টঙ্গী ইজতেমার ব্যাপারে আরজ এই যে সরকারের প্রস্তাবনা অনুসারে উভয়পক্ষের একসঙ্গে ০৩ দিন ইজতেমা করার চাইতে উভয়পক্ষের আলাদা আলাদা ইজতেমা উত্তম মনে করায় কাকরাইলের আহলে শুরা হাযরাতগণ ও শীর্ষস্থানীয় ওলামায়ে কেরাম একমত হয়েছেন যে, আগামী ১৪,১৫ ও ১৬ ফেব্রুয়ারি রোজ বৃহস্পতি,শুক্র ও শনিবার আমাদের ইজতেমা সম্পূর্ণ আলাদাভাবে অনুষ্ঠিত হবে।’

ধর্মপ্রতিমন্ত্রী ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে ইজতেমা শুরু করার কথা জানালেও মাওলানা জুবায়ের স্বাক্ষরিত চিঠিতে একদিন আগেই ইজতেমা শুরুর কথা লেখা হয়েছে।

অপরদিকে নিজামুদ্দীনপন্থী মাওলানা মোশররফ হোসেন স্বাক্ষরিত তাবলীগ জামাত বাংলাদেশের প্যাডে লেখা চিঠিতে জেলা দায়িত্বশীলদের জানানো হয়,‘সরকারের সাথে অনেকগুলো বৈঠক শেষে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে যে,আমরা নিজামুদ্দীন মার্কাজের অনুসারীগণ আগামী ১৭ ও ১৮ ফেব্রুয়ারি তারিখে ইজতেমা করব। ইনশাআল্লাহ,আমাদের এই ইজতেমায় আমল পরিচালনার জন্য বরাবরের মতো নিজামুদ্দীনের একটি জামাত এবারও আসবে।’

দুপক্ষই তাদের অনুসারীদের ইজতেমা সফলের লক্ষ্যে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছে।

তাবলিগ সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ১৪ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার শুরু করে ১৬ ফেব্রুয়ারি শনিবার বিকেলের মধ্যে আখেরি মুনাজাত করবেন মাওলানা জুবায়ের ও তার অনুসারীরা।

১৭ ফেব্রুয়ারি বাদ ফজর বয়ানের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকতা শুরু করবেন নিজামুদ্দীন অনুসারীরা। ১৮ ফেব্রুয়ারি আখেরি মুনাজাতের মধ্যদিয়ে শেষ হবে এ বছরের ইজতেমা।

টানা চারদিন ইজতেমা হলেও আখেরি মুনাজাত হবে দুটি। বিশ্ব ইজতেমার ইতিহাসে এমনটি প্রথম বলে জানিয়েছেন তাবলিগ সংশ্লিষ্টরা।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার বিকেলে সচিবালয়ে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ইজতেমার ব্যবস্থাপনার বিষয়ে তাবলিগের দুটি পক্ষের মুরুব্বিদের সঙ্গে আলোচনা ও পরামর্শ সভা করেন। সভা শেষে চারদিন বিশ্ব ইজতেমার আয়োজন করার বিষয়ে মুরুব্বিরা রাজি হন।

Bootstrap Image Preview