Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৪ রবিবার, মার্চ ২০১৯ | ১০ চৈত্র ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

উপজেলা নির্বাচনে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত বিএনপির

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১ জানুয়ারী ২০১৯, ১১:৪৬ AM
আপডেট: ১১ জানুয়ারী ২০১৯, ১১:৪৬ AM

bdmorning Image Preview


আগামী মার্চে অনুষ্ঠেয় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে এখন পর্যন্ত না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি। সর্বশেষ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রশাসন ও নির্বাচন কমিশনের প্রতি অভিযোগের পাহাড় তুলে বিএনপি এ নির্বাচনে না যাওয়ার পক্ষে। এমনকি ২৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠেয় গাইবান্ধা-৩ আসনের নির্বাচনও বর্জন করেছে দলটি।

দলের নীতিনির্ধারক মহল বলছে, মূল নির্বাচন নিয়ে এখনো বিস্ময়ের ঘোর কাটিয়ে ওঠা যাচ্ছে না। এ অবস্থায় নতুন করে উপজেলা নির্বাচন নিয়ে ভাবনার অবকাশ নেই। সেইসঙ্গে এখনো সংসদে যাওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়নি। এমনকি এসব বিষয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের কোনো সিদ্ধান্তও আসেনি।

এরই মধ্যে কেন্দ্র থেকে বিভিন্ন মামলার জামিন নেওয়ার বিষয়ে মাঠকর্মীদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এজন্য সংশ্লিষ্ট এলাকার বিএনপি প্রার্থীদের সহায়তা করতে বলা হয়েছে। আর যে এলাকায় বিএনপির প্রার্থী নেই, সেখানে দলের সিনিয়র নেতাদের মামলার বিষয়টি দেখার জন্য নির্দেশনা দিয়েছেন বিএনপির হাইকমান্ড।

এ ছাড়া মামলার জামিনের বিষয়ে মাঠকর্মীদের আইনি সহায়তা দিতে বিএনপির আইনজীবীদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। হাই কোর্টে মামলা লড়ার ক্ষেত্রেও থাকছে আইনজীবীদের আলাদা টিম। এদিকে বিএনপির আরেক সূত্র জানিয়েছেন, উপজেলা নির্বাচনে দলীয়ভাবে অংশ না নিলেও কেউ স্বতন্ত্রভাবে অংশগ্রহণ করলে, দলের ভূমিকা কী হবে সে বিষয়েও কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। ফেব্রুয়ারির শুরুতে উপজেলা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর বিএনপি অধ্যুষিত এলাকায় স্বতন্ত্রভাবে ভোটে যাওয়া হবে কিনা, তা পরিবেশ দেখেই স্থানীয়ভাবে সিদ্ধান্ত নেবে দলটি।

সংসদে যাওয়া-না যাওয়ার বিষয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘এ ব্যাপারে আমাদের কথা পরিষ্কার। যে নির্বাচনের ফলাফল আমরা প্রত্যাখ্যান করেছি সে নির্বাচনের সঙ্গে জনগণের কোনো সম্পর্ক নেই। জনগণ পুরোপুরিভাবে যা বর্জন করেছে এবং নির্বাচনের ফলাফল কখনই মেনে নেয়নি সে নির্বাচনের ফলাফলের ভিত্তিতে সংসদ কিংবা সরকার গঠন করার অধিকার কারও নেই।’

তিনি বলেন, ‘আমরা এ নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখ্যান করেছি। পার্লামেন্ট গঠন প্রত্যাখ্যান করেছি। কাজেই প্রত্যাখ্যাত এ সংসদে প্রশ্নই ওঠে না বিএনপির অংশ নেওয়ার। বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকেও একই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।’

উপজেলা নির্বাচনের বিষয়ে নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ জানিয়েছেন, মার্চের প্রথম সপ্তাহ থেকে ধাপে ধাপে সারা দেশে পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচন হবে। এ ক্ষেত্রে জানুয়ারির শেষে অথবা ফেব্রয়ারির শুরুতে তফসিল হতে পারে। আর মার্চের ৩ অথবা ৭ তারিখে প্রথম ধাপের ভোটের প্রাথমিক তারিখ চিন্তা করা হচ্ছে।

ইসির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, দেশে ৪৯২টি উপজেলা রয়েছে। এর মধ্যে কয়েকটিতে সম্প্রতি নির্বাচন হয়েছে। তবে মার্চের মধ্যে যেগুলো নির্বাচন উপযোগী হবে সেগুলোয় প্রথম ধাপে ভোট হবে। এজন্য জানুয়ারির শেষে অথবা ফেব্রুয়ারির শুরুতে তফসিল ঘোষণার পরিকল্পনা নিয়ে কাজ চলছে।

Bootstrap Image Preview