Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৭ বুধবার, জুলাই ২০১৯ | ২ শ্রাবণ ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

সর্দি-কাশি প্রতিকারে কার্যকরি উপাদান বেসন

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ০২:২৯ PM
আপডেট: ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ০২:২৯ PM

bdmorning Image Preview


শীত আসলেই বেড়ে যায় সর্দি-কাশি, বুকে শ্লেষ্মা বা কফ জমার সমস্যা। তাই শীতের সময়ে যাদের ঘনঘন ঠাণ্ডার সমস্যা হয় তারা গোসল ও খাওয়ার কাজে হালকা কুসুম পানি ব্যবহার করতে পারেন। এতে করে সমস্যা অনেকটা কমে যাবে।

অনেকেই সর্দি-কাশির সমস্যাকে তেমন গুরুত্ব দিতে চান না। কিন্তু সময় মতো চিকিৎসা না করালে বুকে শ্লেষ্মা বা কফ জমে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়তে পারে শ্বাসযন্ত্রে।

সর্দি-কাশির সমস্যার প্রতিকারে একটি অত্যন্ত কার্যকরি উপাদান হল বেসন। বেসন দিয়ে তৈরি সুস্বাদু একটি খাবার বা আয়ুর্বেদিক পথ্য রয়েছে যা সর্দি-কাশি, ঠাণ্ডা লাগার সমস্যা নিরাময়ে খুবই উপকারি।

তাই সর্দি-কাশির সমস্যায় ঘরেই তৈরি করতে পারেন বেসন শিরা। আসুন জেনে নেওয়া যাক কীভাবে তৈরি করতে  বেসন শিরা-

উপকরণ:

বেসন, সামান্য ঘি, হলুদ গুঁড়ো, দুধ, গোলমরিচ গুঁড়ো আর গুড়। 'বেসন শিরা' অনেকটা হালুয়ার মতো খেতে। অসুস্থ ও দুর্বল শরীরকে চাঙ্গা করে তুলতে সাহায্য করে বেসন। এছাড়াও বেসনে প্রচুর অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট থাকে যা ঠাণ্ডা দূর করতে অত্যন্ত কার্যকর। অনেক সময়ে এতে হলুদ গুঁড়ো দেওয়া হয়, সেটা ঠাণ্ডা দূর করতে কাজে আসে। ঘি দিয়ে ধীরে ধীরে বেসন ভাজা এবং এতে গুড় দেওয়ার কারণেও শরীর ভেতর থেকে গরম হয়ে আসে।

প্রণালী:

একটি পাত্রে কয়েক ৩-৪ চামচ ঘি গরম করে নিয়ে তাতে বেসন ধীরে ধীরে ভাল করে নেড়েচেড়ে ভেজে নিতে হবে। বেসনের রং গাড় হলুদ হয়ে এলে এতে দুধ দিয়ে ফের নাড়তে হবে। মিনিট পাঁচেক পর হলুদ আর গোলমরিচ গুঁড়ো দিয়ে ভাল করে নেড়েচেড়ে মেশাতে হবে। সবশেষে এরমধ্যে আন্দাজ মতো গুড় দিয়ে ৫-৭ মিনিট নেড়েচেড়ে আঁচ থেকে নামিয়ে নিতে হবে। স্বাদ বাড়াতে আঁচ থেকে নামিয়ে বেসন শিরার ওপর থেকে সামান্য বাদামও ছড়িয়ে দেওয়া যেতে পারে।

Bootstrap Image Preview