Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ০৪ বৃহস্পতিবার, জুন ২০২০ | ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ | ঢাকা, ২৫ °সে

'হত্যা' করে লাশ হাসপাতালে রেখে পালালো স্বামী!

ক্রাইম ডেস্ক
প্রকাশিত: ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১২:০৮ PM
আপডেট: ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১২:১৪ PM

bdmorning Image Preview
ফাইল ছবি


যশোরের বেনাপোলে আয়শা খাতুন খুকি (৩০) নামে এক গৃহবধূকে নির্যাতন ও কীটনাশক খাইয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামী গোলাম হোসেনের বিরুদ্ধে। শুধু তাই নয় হাসপাতালে স্ত্রী আয়শার লাশ ফেলে রেখে স্বামী গোলাম হোসেন পালিয়েছেন বলেও মিলেছে অভিযোগ।

গতকাল শুক্রবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাতে বেনাপোল থানার গয়ড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত আয়শা খাতুন বেনাপোল থানার আমড়া খালী গ্রামের মৃত নুরুল আমিনের মেয়ে। এবং সে গোলাম হোসেনের দ্বিতীয় স্ত্রী।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, পূর্বে আমড়া খালী গ্রামের গোলাম রব্বানীর সঙ্গে বিবাহ হয় আয়শা খাতুনের। পূর্বের সংসারে দুই ছেলে মেয়েও আছে। প্রথম স্বামীর সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ হয়ে যাবার পর গত ১০-১৫ দিন আগে গয়ড়া গ্রামের গোলাম হোসেনের সঙ্গে বিবাহ হয় আয়শা খাতুনের। তখন থেকে ছেলে-মেয়েসহ গোলাম হোসেনের বাড়িতেই থাকতেন আয়শা খাতুন।

নিহত আয়শা খাতুনের দ্বিতীয় স্বামীর উপর অভিযোগ এনে তার ভাই রিয়াজুল ইসলাম বলেন, ' আমার বোন স্বামীর বাড়িতেই ছিলো। শুক্রবার রাতে তাকে মারধর করে ও নির্যাতন চালায় তার স্বামী গোলাম হোসেন। নির্যাতনের পর তাকে কীটনাশক খাইয়ে হত্যাচেষ্টা করে। তাকে হাসপাতালে আনার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেলে আয়শার লাশ ফেলেই পালিয়ে যায় গোলাম হোসেন।'

এ বিষয়ে কোতোয়ালি থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শাহাজামাল বলেন, আয়শা খাতুনের মৃত্যুর ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে৷ লাশের শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। কীটনাশক পান করা রোগী হিসেবে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন৷ তবে ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পাওয়ার পরে বলা যাবে এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা৷

Bootstrap Image Preview