Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২০ বৃহস্পতিবার, জুন ২০১৯ | ৬ আষাঢ় ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

'নারীর ক্ষমতায়ন অব্যহত রাখতে শেখ হাসিনার ক্ষমতায় আসা জরুরি'

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৩:১৪ PM
আপডেট: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৩:১৪ PM

bdmorning Image Preview


বিডিমর্নিং নারী ডেস্কঃ

চট্রগ্রাম মহিলা আওয়ামী লীগের নগর শাখার সভানেত্রী হাসিনা মহিউদ্দিন বলেছেন,  সন্তানের পরিচয়ে পিতার পাশাপাশি মায়ের নাম সংযোজন প্রধানমন্ত্রীর একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ। এই সামাজিক সন্মান এবং স্বীকৃতি বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে বিপ্লব তৈরি করেছে। নারীর এই অভ্যুদয় বজায় রাখতে হলে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে পুনরায় ক্ষমতায় আনা খুব জরুরি।

শনিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) ‘সম্মিলিত নারী উদ্যোগ’ চট্টগ্রাম শাখার আয়োজনে ‘নারীর ক্ষমতায়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার দশটি উদ্যোগ’ শীর্ষক এক কর্মশালায় তিনি এসব কথা বলেন।

হাসিনা মহিউদ্দিন বলেন, মাতৃত্বকালীন ছয় মাসের ছুটি ও ভাতা, বিধবা, বয়স্ক ও প্রতিবন্ধী ভাতা চালু,ছাত্রীদের জন্য স্নাতক পর্যন্ত অবৈতনিক শিক্ষা ব্যবস্থা, উপবৃত্তি চালু, কর্মজীবী মহিলা হোস্টেল নির্মাণ,ডিপ্লোমা ইন মিড ওয়াইফারি কোর্স চালু,নারীদের প্রশিক্ষণ ও কর্মসংস্থান সৃষ্টি,বাল্য বিবাহ এবং ইভটিজিং জাতীয় সমস্যাগুলো থেকে নারীর সার্বিক সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আইন প্রণয়ন করে নারীদের সর্বোচ্চ মর্যাদায় আসীন করেছেন।

নগরের পাহাড়তলীস্থ ডায়মন্ড টাচ কমিউনিটি সেন্টারে এই কর্মশালার  উদ্বোধন করেন মহিলা আওয়ামী লীগ নগর শাখার সভানেত্রী হাসিনা মহিউদ্দিন। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন। অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্ব করেন নগর মহিলা আওয়ামী লীগ শাখার শিল্প ও বাণিজ্য সম্পাদক হুরে আরা বিউটি।

কর্মশালায় নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন বলেন, ,‘নারীর উন্নয়নে বদলে যাচ্ছে শহর-বন্দর,গ্রাম-গঞ্জের কর্ম এবং যাবতীয় জীবন ধারা। গৃহস্থালি কাজ থেকে শুরু করে, চিকিৎসাবিদ্যা, প্রকৌশল, আইন, প্রশাসনের উচ্চস্তর থেকে নিম্নস্তর, নার্সিং, শিক্ষকতা, খেলাধুলা, জ্ঞান-বিজ্ঞানের গবেষণা, প্রযুক্তি, সাংস্কৃতিক অঙ্গন, ব্যবসা বাণিজ্যসহ সকল স্তরেই নারীদের পদচারনা বিরাজ করছে।

তিনি আরও জানান, বহিরবিশ্বে বাংলাদেশের নারীর অবস্থান এখন শক্ত ভিত্তির ওপর প্রতিষ্ঠিত। নারী ক্ষমতায়নে বাংলাদেশের এই সাফল্যকে সারাবিশ্ব অবাক হয়ে তাকিয়ে দেখছে।বিশ্বের কাছে বাংলদেশ এখন নারীর ক্ষমতায়নের রোলমডেল। প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার  হাত ধরেই এই সব উন্নয়ন সম্ভব হয়েছে বলে দাবী করেন তিনি।

নগর মহিলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হোসনে আরা বেগমের পরিচালনায় সভায় আরও বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগ নেতা সৈয়দ মো. জাকারিয়া,সাবেক কাউন্সিলর মো. সিরাজুল ইসলাম,মহিলা কাউন্সিলর নিলু নাগ,নারীনেত্রী কান্তা ইসলাম মিনু।

স্বাগত বক্তব্যে অনুষ্ঠানটির পরিকল্পনাকারী এবং পৃষ্ঠপোষক নগর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ফরিদ মাহমুদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টেকসই উন্নয়নের পরিকল্পনা বাস্তবায়নে আমাদেরকে নারী-পুরুষের ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে এই সরকারের সাফল্যগুলো জনগণকের কাছে  তুলে ধরতে হবে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন- নগর আওয়ামী লীগের সদস্য কাউন্সিলর মোরশেদ আক্তার চৌধুরী, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব দেওয়ান মাকসুদ, ডা. নুরুল ইসলাম, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা এরশাদ মামুন, লুৎফুর রহমান খুশি, নগর যুবলীগ সদস্য আঞ্জুমান আরা বেগম, নেসার আহমেদ, শেখ নাছির আহমেদ, দেলোয়ার হোসেন দেলু, হোসেন সরওয়ার্দী, সরাইপাড়া ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি ইসলাম খাঁন প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বরেণ্য বুদ্ধিজীবী ড. অনুপম সেনের একটি ভিডিও বার্তাও প্রদর্শন করা হয়।

আলোচনা পর্ব এবং উপস্থিত অতিথিদের বক্তব্য শেষে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গ্রহনকৃত দশটি উদ্যোগ,একটি বাড়ি একটি খামার,পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক,আশ্রয়ন প্রকল্প,ডিজিটাল বাংলাদেশ,শিক্ষা সহায়তা কর্মসূচি,নারীর ক্ষমতায়ন,ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ,কমিউনিটি ক্লিনিক ও মানসিক স্বাস্থ্য,সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি,বিনিয়োগ বিকাশ,পরিবেশ সুরক্ষার একটি সুপরিকল্পিত ভিডিও স্লাইড উপস্থিত নারীদেরকে বড় পর্দায় দেখানো হয়।

উপস্থিত সকলের মাঝে ফরিদ মাহমুদ তার পুনর্মুদ্রিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দশটি উদ্যোগ বইটি বিতরণ করেন। পুনর্মুদ্রিত বইটি উৎসর্গ করা হয় সাবেক সিটি মেয়র চট্টলবীর এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীকে।

Bootstrap Image Preview