Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৮ শুক্রবার, অক্টোবার ২০১৯ | ৩ কার্তিক ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

বাংলাদেশের মধ্যে দিয়ে কলকাতা-কুনমিং বুলেট ট্রেন চালু করতে আগ্রহী চীন

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৭:২৯ AM
আপডেট: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৯:১৯ AM

bdmorning Image Preview


মিয়ানমার ও বাংলাদেশের ওপর দিয়ে কুনমিং থেকে কলকাতা পর্যন্ত চীন বুলেট ট্রেন চালু করতে চায় বলে জানিয়েছে কলকাতায় চীনের কনসাল জেনারেল মা হান। গতকাল বুধবার এক সম্মেলনে তার দেশের এই পরিকল্পনার কথা তুলে ধরেন। তার বক্তব্যের উদ্ধৃতি দিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এক প্রতিবেদনে এ কথা জানানো হয়েছে।

হান বলেন, ভারত ও চীনের যৌথ উদ্যোগে কলকাতা ও কুনমিংয়ের মধ্যে উচ্চগতির ট্রেন চালুর এ পরিকল্পনা এগিয়ে নেয়া যায়। আর যদি তা সম্ভব হয়, তা হলে মাত্র কয়েক ঘণ্টার মধ্যে ট্রেনে চড়ে কলকাতা থেকে কুংমিংয়ে যাওয়া সম্ভব হবে। আর সে ক্ষেত্রে মিয়ানমার ও বাংলাদেশের সামনেও লাভবান হওয়ার সুযোগ থাকবে বলে মনে করছেন এ চীনা কূটনীতিবিদ।

তিনি বলেন, আমরা ২৮০০ কিলোমিটার দীর্ঘ ওই রেলপথের বিভিন্ন অংশে শিল্পকারখানা গড়ে তুলতে পারি। তাতে যেসব দেশের ওপর দিয়ে এই রেলপথ যাবে, তাদের সবারই অর্থনৈতিক উন্নয়নের সম্ভাবনা থাকবে।

কুনমিংয়ে ২০১৫ সালে যে গ্রেটার মেকং সাবরিজিয়ন সম্মেলন হয়েছিল, সেখানেও এ পরিকল্পনার উল্লেখ করা হয়েছিল বলে জানান হান।

তিনি বলেন, এ রেলপথের লক্ষ্য হবে বিসিআইএম (বাংলাদেশ-চীন-ভারত-মিয়ানমার) করিডরে আন্তঃবাণিজ্য বাড়ানো। আর কলকাতা থেকে কুনমিং পর্যন্ত ইতিহাসের সেই সিল্ক রুট পুনরুদ্ধারে চীন বদ্ধপরিকর।

কলকাতায় চীনের কনসাল জেনারেল এই বলে আশ্বস্ত করেন যে, তার দেশের আলোচিত বেল্ট অ্যান্ড রোড পরিকল্পনা বিশ্বজয়ের বা প্রতিবেশীদের দখল করার পরিকল্পনা থেকে নেয়া হয়নি।

হানের ভাষায়, এ পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে যাতে আলোচনা আর পারস্পরিক পরামর্শের মাধ্যমে সবারই লাভবান হওয়ার সুযোগ তৈরি করা যায়। তিনি বলেন, এই রেল চালু হলে মাত্র কয়েক ঘণ্টার মধ্যে কলকাতা থেকে কুনমিং পৌঁছানো যাবে।

Bootstrap Image Preview