Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৪ শুক্রবার, ডিসেম্বার ২০১৮ | ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

বুধবার রাতে রাস মেলার আনুষ্ঠানিকতা শুরু

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২০ নভেম্বর ২০১৮, ০৮:১২ PM
আপডেট: ২০ নভেম্বর ২০১৮, ০৮:৩৮ PM

bdmorning Image Preview


জাহিদ রিপন, পটুয়াখালী প্রতিনিধি:

প্রতি বছরের ন্যায় এবারও সমুদ্র সৈকত কুয়াকাটায় শুরু হচ্ছে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের শত বছরের ঐতিহ্যবাহী রাস মেলা।

বুধবার (২১ নভেম্বর) রাতে অধিবাসের মধ্য দিয়ে শুরু হবে এর আনুষ্ঠানিকতা। মেলা ঘিরে উৎসবের রংয়ে সেজেছে কুয়কাটা রাধাকৃষ্ণ সেবাশ্রম ও কলাপাড়া সেবাশ্রম এলাকা।

বৃহাস্পতিবার প্রতুষ্যে পূর্নিমা তিথিতে পুণ্যস্নানের মধ্যদিয়ে ধর্মীয় আনুষ্ঠানিকতা শেষ হলেও মেলা চলবে প্রায় সপ্তাহব্যাপী। সপ্তাহব্যাপী এ রাস উৎসককে ঘিরে এরই মধ্যে কুয়কাটায় আগমন ঘঠেছে দেশি-বিদেশি পুন্যার্থী, সাধূ-সন্যাসীসহ ভক্ত-দর্শনার্থীর।

কলাপাড়া উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, ভক্ত-পূন্যার্থীদের নিরাপত্তায় জেলা পুলিশ, টুরিস্ট পুলিশ, নৌ-পুলিশ, র‌্যাবের সমন্বয়ে নেয়া হয়েছে চার স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা। প্রস্তত থাকবে ফায়ার সার্ভিসের একটি টিম।

কুয়াকাটা রাস পূজা উৎযাপন কমিটির সাধারন সম্পাদক উত্তম দে জানান, বৃহাস্পতিবার প্রতুষ্যে পূর্নিমা তিথিতে পুণ্যস্নানের মধ্যদিয়ে ধর্মীয় আনুষ্ঠানিকতা শেষ হলেও মেলা চলবে আরো চার দিন। গত বছরের তুলনায় এবার আয়োজন অনেক বেশি।

কুয়কাটা পৌর মেয়র আবদুল বারেক মোল্লা জানান, মেলা উপলক্ষে সকল প্রকার ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। খাবার পানি, টয়েলেট, নারী পূন্যার্থীদের পোষাক পরিবর্তনের জায়গাসহ সকল প্রকার ব্যাবস্থা নেয়া হয়েছে। শৃঙ্খলা বজায় রাখতে প্রায় পঞ্চাশ জনের মতো সেচ্ছাসেবক থাকবে। পূন্যার্থীদের আবাসন সুবিধায় প্রতিবারের ন্যায় এবারও স্থানীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলো খুলে দেয়া হবে।

মহিপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাইদুল ইসলাম বলেন, দর্শনার্থীদের নিরাপত্তায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর টহলের পাশাপাশি পুরো এলাকা রয়েছে সিসি ক্যামেরার আওতায়। ২কি.মি এলাকা জুড়ে থাকবে পুলিশের প্রহরা।

কুয়াকাটা শ্রী শ্রী রাধাকৃষ্ণ মন্দির ও তীর্থযাত্রী সেবাশ্রম মন্দির অধ্যক্ষ ব্রক্ষচারী শিশির মহারাজ বলেন, দাপরযুগে কংশ রাজার অত্যাচারে থেকে মানবজাতিকে রক্ষায় ধরাধামে আবির্ভূত হন শ্রীকৃষ্ণ। অলৌকিক ক্ষমতাবলে কংস রাজাকে বধ করে রক্ষা করেন মানবকুলকে।

পরবর্তীতে মানুষের মধ্যে হিংসা, হানাহানি, বিদ্বেষ মোচন করে ভ্রাতৃত্ব বন্ধন সুদৃঢ় করতে রাধাকে নিয়ে পূর্ণিমা তিথিতে বৃন্দাবনের গোকুলে তমাল ও কদমকুঞ্জে নিষ্কাম প্রেমে মিলিত হন শ্রীকৃষ্ণ। যা তখন থেকে রাস উৎসবে পরিণত হয়। এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার রাতে অধিবাসের মধ্য দিয়ে সাগর সৈকত কুয়াকাটায় শুরু হচ্ছে শত বছরের ঐতিহ্যবাহী রাস মেলা।

Bootstrap Image Preview