Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১২ বুধবার, ডিসেম্বার ২০১৮ | ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

কেউ কথা রাখেনি, হাসপাতালের বেডে বাঁচার জন্য একাই লড়াই করছেন চামেলী

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২০ নভেম্বর ২০১৮, ১২:০৩ PM
আপডেট: ২০ নভেম্বর ২০১৮, ১২:০৩ PM

bdmorning Image Preview


বড় আশা নিয়ে বাঁচার জন্য চিকিৎসা নিতে ঢাকায় এসেছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় নারী ক্রিকেট দলের সাকেব খেলোয়াড় চামেলী খাতুন। কিন্তু তাঁর সেই স্বপ্ন মাত্র দুদিনেই শেষ হয়ে গেল।এখন আবার বাঁচার জন্য হাসপাতালের বেডে শুয়ে সবার কাছে আকুতি জানাচ্ছেন।

গত মাসে চামেলীর অসুস্থার খবর নিয়ে চারিদিকে হৈ চৈ পড়ে যায়। এরপর তাকে সাহায্য করতে এগিয়ে আসেন   বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড থেকে শুরু করে জাতীয় দলের টেস্ট অধিনায়ক সাকিব আল হাসান, মুস্তাফিজুর রহমান কিংবা রুবেল হোসেন। কিন্তু কেউ এখন তাঁর পাশে নেই। তাই নিজের জীবন বাঁচাতে এখন নিজেই লড়াই করছেন।


নিজের বর্তমান অবস্থা প্রসঙ্গে চামেলী জানিয়েছেন, ‘প্রথম দুইদিন বাদে এই ১৯ দিন ধরে আমার চিকিৎসা খরচ আমিই বহন করছি। আমার খোঁজ তো কেউ নিচ্ছেনই না উল্টো আমি ফোন দিলে আমার ফোনও ধরছেন না। এটা খুবই দুঃখজনক ব্যাপার। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমার জন্য যা কিছু করেছেন সেটা আমার জন্য যথেষ্ট। তিনি এখন নির্বাচনের জন্য ব্যস্ত আছেন, তাই হয়তো আমার খোঁজ নিতে পারছেন না।’
এখন আর চামীর সাথে আর কেউ যোগাযোগ করছে না।  গত কয়েকদিন বিসিবির প্রধান নির্বাহীর সঙ্গে যোগাযোগেও ব্যর্থ হোন তিনি।

চামেলীর দাবি, বিসিবির প্রধান নির্বাহী তাঁর ফোন নম্বর ব্লক করে রেখেছেন।শুধু বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড থেকেই নয়, চামেলীর পাশে থাকার কথা দিয়েছিলেন জাতীয় দলের কয়েকজন ক্রিকেটার। তারাও আর এখন কোনও খবর নিচ্ছেন না।

তিনি আরো জানিয়েছেন, ‘সাকিব ভাই আমাকে বলেছিল, আমি আপনার সাথে আছি। রুবেল ভাই আমার সাথে ছিলেন। সবচেয়ে বড় কথা আমি টাকা চাই না, সাপোর্ট চাই। আর সেই সাপোর্টটাই আমি বিসিবি থেকে পাচ্ছি না।

সবশেষ চামেলীর আকুতি, তাকে যেন উন্নত চিকিৎসার জন্য দেশের বাইরে পাঠানো হয়। কোথায় চিকিৎসা করাবেন এসবেরও খোঁজ নিয়েছেন ইতোমধ্যে।

Bootstrap Image Preview