Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১২ বুধবার, ডিসেম্বার ২০১৮ | ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

বিবিসির সেরা ১০০ নারীর তালিকায় সেই বাংলাদেশি মা

নারী ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ০৬:৫৯ PM
আপডেট: ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ০৭:০৭ PM

bdmorning Image Preview


প্রতিবছর সারা বিশ্বের বিজ্ঞান, রাজনীতি, বিনোদন, সাংবাদিকতাসহ বিভিন্ন অঙ্গনের ১০০ জন অনুপ্রেরণাদায়ক নারীর তালিকা প্রকাশ করে বিবিসি। বিবিসির করা সেই সেরা শত নারীর তালিকায় এবার রয়েছেন বাংলাদেশের সেই মা, যে কিনা তার ১৮ বছর বয়সী নিষ্ক্রিয় সন্তানকে কোলে করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করাতে নিয়ে যান। 

আজ সোমবার (১৯ নভেম্বর) সংবাদমাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদনে ২০১৮ সালের ১০০ নারীর তালিকা প্রকাশ করেছে।

বিবিসির ওই তালিকার ৮১ নম্বর সিরিয়ালে দেখা যায়, বাংলাদেশি নারী সীমা সরকারকে।

প্রতিবেদনে সীমা সরকার সম্পর্কে লেখা হয়েছে, ‘সীমা সরকার বাংলাদেশের ৪৪ বছরের একজন মা। সীমা তার ১৮ বছরের নিষ্ক্রিয় সন্তানকে কোলে করে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করাতে নিয়ে এসেছে এবং সেই ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়েছে।’

বাংলাদেশি ছাড়াও দক্ষিণ এশিয়ার ভারত ও পাকিস্তানের নারীরাও বিবিসির এই তালিকায় জায়গা করে নিয়েছেন।

২০১৮ সালের বিবিসির ১০০ নারী তালিকার প্রথম নামটি হচ্ছে, নাইজেরিয়ার নারী আবসোয়ে আজায়ি-আকিনফোলারিন। তিনি একজন সামাজিক উদ্যোক্তা। এরপরের অবস্থানে রয়েছেন, বাহরাইনের একটি অলাভজনক প্রতিষ্ঠানের নির্বাহী পরিচালক ইসরা আল শাফেয়ী। তালিকায় রয়েছেন রাশিয়ার ১৮ বছর বয়সী মডেল আলেকসিভা। রয়েছেন সোমালিল্যান্ডের ৩৫ বছর বয়স্ক লেখিকা নিমকো আলি। এ ছাড়া কিউবার পরিচালক এবং নৃত্যশিল্পী লিজ্ট আলফনসো।

তালিকায় আরও রয়েছেন, ভারতীয় ৩৩ বছর বয়সী ব্যবসায়ী নারী মিনা গায়েন। পাকিস্তানের ইতিহাসে প্রথম দলিত হিন্দু নারী হিসেবে সিনেট সদস্য নির্বাচিত কৃষ্ণা কুমারী। মিনা ছাড়াও ভারতীয় আরও কয়েকজন নারী এই তালিকায় জায়গা পেয়েছেন। তবে বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের সীমা ও কৃষ্ণা ছাড়া আর কেউ বিবিসির ১০০ নারীর এই তালিকায় জায়গা পাননি।

বাংলাদেশের নেত্রকোনার নারী সীমা সরকারের ছেলে হৃদয় সরকারের নিজের পায়ে চলার শক্তি নেই। জন্ম থেকেই অজানা রোগে হাঁটার ক্ষমতা হারান হৃদয় সরকার। মা সীমা সরকার ছেলেকে হুইল চেয়ার কিনে দেননি। ছেলেকে বলেছিলেন, তার যতদিন শক্তি আছে, ততদিন সবখানে তাকে কোলে করেই নিয়ে যাবেন। 

গত ২১ সেপ্টেম্বর, শুক্রবার হৃদয় মায়ের কোলে চড়েই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা অনুষদের অন্তর্ভুক্ত ‘খ’ ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষা দিতে এসেছিলেন। তার গর্ভধারিণী মা কোলে করে যখন পরীক্ষার হলে নিয়ে গেলো, পৃথিবীর অসাধারণ মাতৃত্বের ছবিটি অনেকেই মোবাইলে ধারণ করেছে।

মায়ের কোলে চড়ে ভর্তি পরীক্ষা দিতে আসার ঘটনাটি সে সময় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে পড়ে।

Bootstrap Image Preview