Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৭ সোমবার, ডিসেম্বার ২০১৮ | ২ পৌষ ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

বিষ হাতে সপরিবারে আত্মহত্যার হুমকি, ভিডিও ভাইরাল

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ০৯:৪৪ PM
আপডেট: ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ০৯:৪৪ PM

bdmorning Image Preview
সংগৃহীত


ফেইসবুকে ভিডিও আপলোড করে সপরিবারে আত্মহত্যার হুমকি দিয়েছেন রাজা কামাল নামে এক ব্যক্তি। রাজা কামাল কুমিল্লা মহানগরীর দক্ষিণ চর্থা থিরাপুকুর পাড় এলাকার প্রয়াত ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পুত্র।

মিল্লায় পৈত্রিক সম্পত্তি থেকে উচ্ছেদ পাঁয়তারার প্রতিবাদে এবং দখলদারদের হাত থেকে ৩০৬ শতক ভূমি রক্ষার্থে তিনি ‘হেল্পলেস’ শিরোনামে ৬ মিনিট ৫৭ সেকেন্ডের ওই ভিডিওটি ফেসবুকে আপলোড করেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে যায়।

ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, ‘…আমি যে জায়গায় বসে আছি এটা আমার বাপ-দাদার সম্পদ। সিএস/আরস খতিয়ান ও খাজনা রশিদ আমার নামে থাকা সত্ত্বেও বিএস খতিয়ানে কিছুটা ঝামেলা রয়েছে। এ সংক্রান্তে আদালতে মামলা চলছে। তা সত্ত্বেও কিছুদিন পূর্বে আর্মির সার্জেন্ট পরিচয় দিয়ে আমাকে বাড়ি ছাড়ার হুমকি দিয়ে গালমন্দ করে। তিনি বলেন, এখান থেকে আমাকে উঠে যেতে হবে, ঢাকা ক্যান্টনমেন্টের একজন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ জায়গা ক্রয় করেছেন। আমার নামে তিনটি মামলা আছে, আমাকে এ বাড়ি থেকে যেকোনো মুহূর্তে চলে যেতে হবে। পরে আমি ক্যান্টনমেন্টে গিয়েছি, সেখান থেকে আমাকে বলেছে এটা ভূয়া তথ্য...।

র‌্যাব অফিসে গিয়েছি, সেখান থেকে জিডি করতে বলা হয়েছে, করেছি। কিছুদিন পূর্বে সদর দক্ষিণ থানা ও ইপিজেড ফাড়ির পুলিশ আমার বাসায় এসে বলে আমার নামে মামলা আছে, বাসা ছেড়ে দিতে হবে। না হয় আরো কয়েকটি মামলা দিয়ে আমাকে নিয়ে যেতে হবে।

জবাবে আমি বললাম, আমার বাপ-দাদার সম্পদ কেনো ছেড়ে যেতে হবে? যদি যেতেই হয়, আমি সুইসাইড করবো। পরে তারা আমার জিডির কপিটা নিয়ে চলে যান।

গতকাল (বুধবার) সকালে ইপিজেড ফাঁড়ির ইনচার্জ আমাকে কাগজপত্র নিয়ে সেখানে যেতে বলেন। আমি সকল কাগজপত্র এবং আমার উকিল সাহেবকে নিয়ে যাই। কিন্তু আমার কাগজপত্র না দেখে একদিনের মধ্যে বাড়ি ছেড়ে দিতে বলে। সেখানে দেখি অন্তত ২শ’ লোক জড়ো করা হয়েছে আমাকে মারার এবং হত্যার উদ্দেশ্যে। আমি ভয়ে কিছু বলিনি, উকিল সাহেবকে নিয়ে কোনো রকমে ওইখান থেকে বের হয়ে চলে আসি। আমাকে বলা হচ্ছে কিছু টাকার বিনিময়ে বাড়ি ছেড়ে দেন, না হয় আপনাকে বাড়ি থেকে বের করে দেবো।

তিনি ফেসবুকে মানুষের সহযোগিতা চেয়ে ওই ভিডিওতে আরো বলেন, ‘পরবর্তীতে অনেকের দ্বারস্থ হয়েছ, কিন্তু কারো কাছ থেকেই সহযোগিতা পাইনি। তাই আমি আপনাদেরকে জানাতে চাই, যদি আমাকে বাড়ি ছাড়তেই হয়, আমি আজকে দেখেন এই এনডিনের শিশিটা (বিষের বোতল দেখিয়ে) নিয়ে এসেছি। যদি যেতেই হয়- আমি আমার গর্ভবতী স্ত্রী ও আমার দুই সন্তানকে নিয়ে আত্মহত্যা করবো। তবুও এ বাড়ি ছেড়ে আমি যাবো না। আপামর জনতা, যারা আমার ভিডিও দেখছেন- যদি আমাকে আইনি সহায়তা না দেন তাহলে আমি আমার পরিবার নিয়ে আত্মহত্যা করবো...।’

Bootstrap Image Preview