Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৭ সোমবার, ডিসেম্বার ২০১৮ | ২ পৌষ ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

চুরি করে প্রাণ রায়ের কুকুর খেতে গিয়ে ধরা ২ চীনা নাগরিক

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২ নভেম্বর ২০১৮, ১১:১১ PM
আপডেট: ১২ নভেম্বর ২০১৮, ১১:১১ PM

bdmorning Image Preview
সংগৃহীত


রাজধানীর পিংক সিটি আবাসিক এলাকায় কুকুর খেতে গিয়ে ধরা পড়েছেন চীনের দুই নাগরিক। কুকুরটির মালিক জনপ্রিয় অভিনেতা প্রাণ রায়। নিজের পোষা কুকুরটিকে খুঁজে পাচ্ছিলেন না তিনি। পরে জানতে পারেন, চীনের দুই নাগরিক তার কুকুরটি ধরে নিয়ে গলা কেটে ফেলেছেন। ঘটনা জানতে পেরে অভিযোগ করেন পুলিশের কাছে।

সোমবার (১২ নভেম্বর) দুপুরে বাসার সামনে একটি কুকুরকে ঘোরাঘুরি করতে দেখে লোভ সামলাতে পারেননি চীনা নাগরিকরা। খাওয়ার জন্য সেই কুকুরটিকে ধরে জবাই করেন তারা।

জানা যায়, ভিডিও গেমস সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার চীনা নাগরিক চিমিং ও লিয়ান। চাকরিসূত্রে বসবাস করেন রাজধানীর পিংক সিটি আবাসিক এলাকার একটি বাসায়।

সূত্র জানায়, কুকুরের গলা কাটার পর ধুয়েমুছে মাংস বের করার আয়োজন চলছিল। আশপাশের লোকজন এ দৃশ্য দেখে ফেলেন। তাদের কাছ থেকে কুকুরের মালিক ঘটনাটি জানতে পেরে থানা-পুলিশকে খবর দেন।

এ প্রসঙ্গে প্রাণ রায় বলেন, আমার মোট ছয়টি কুকুর। এর মধ্যে কুকিজ ছিল দেশি প্রজাতির। দুপুর ২টার দিকে বাসার পাশের লেক পাড়ে আমার কুকুরগুলো খেলা করছিল। সেখান থেকে ১১ মাস বয়সী কুকিজকে (কুকুরের নাম) কয়েকজন চীনা নাগরিক চুরি করে নিয়ে যায়। তারা গলায় তার পেঁচিয়ে কুকিজকে জবাই করে চামড়া কল পাড়েই ফেলে রেখে যায়। পাশের বাড়ির ড্রাইভার এসে আমাকে চীনা নাগরিকের কুকুর নিয়ে যাওয়ার বিষয়টি বলেন। সঙ্গে সঙ্গে আমি খুঁজে দেখি আমার একটা কুকুর নেই। বিকেল ৩টার দিকে আমরা গিয়ে দেখি চীনা নাগরিকরা আমার কুকুরটাকে বার্নার দিয়ে পোড়াচ্ছে। সঙ্গে সঙ্গে তাকে আমরা ধরে ফেলি। এরপর থানায় জিডি করি।

রাজধানীর খিলক্ষেত থানায় অভিযোগ দায়েরের পর হো চিমিং ও লিয়ান নামের চীনের দুই নাগরিককে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

এ বিষয়ে খিলক্ষেত থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মাসুদুর রহমান বলেন, ‘কুকুরটির মালিক অভিনেতা প্রাণ রায়। তার পোষা কুকুরটিকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। কুকুরের গলা কাটার খবর পেয়ে তিনি থানায় অভিযোগ করেছেন। এরপর দুই চীনাকে থানায় আনা হয়েছে। খবর পেয়ে চীনা দূতাবাসের কর্মকর্তারা থানায় এসেছেন।’

তিনি আরও জানান, নিজেদের ভুল বুঝতে পেরে বিষয়টি মীমাংসা করার চেষ্টা করলেও কুকুরের মালিক প্রাণ রায় থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) লিপিবদ্ধ করেছেন। এরপর মীমাংসা না হওয়ায় চলে গেছেন চীনা দুই নাগরিক।

Bootstrap Image Preview