Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৮ রবিবার, নভেম্বার ২০১৮ | ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

সংলাপ শেষঃ সাত দফা দাবির বেশির ভাগই মেনে নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

আশরাফ সিদ্দিক বিটু

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭ নভেম্বর ২০১৮, ০২:২৯ PM
আপডেট: ০৭ নভেম্বর ২০১৮, ০৬:১৯ PM

bdmorning Image Preview


সংলাপ শেষে গণভবন থেকে বেড়িয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জানিয়েছেন, তারা আজকে যে দাবিগুলো নিয়ে এসেছেন প্রধানমন্ত্রী তার বেশির ভাগ দাবিই মেনে নিয়েছেন। তারা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আগে, সে বিষয়ে তার ঐক্যমত চান।

বুধবার দুপুর আড়াইটারে দিকে সংলাপ শেষে গণ ভবনে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে তিনি এ কথা জানান।

তিনি বলেন, তারা চেয়েছেন সংসদ ভেঙে দিয়ে ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন। এছাড়া তারা লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড ও রাজবন্দিদের মুক্তি চেয়েছেন, এ বিষয়ে তাদের দাবি মেনে নিতে আমাদের কোনো সমস্যা নেই।

নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েন সম্পর্কে তিনি বলেন, সেনাবাহিনীর মেজিস্ট্রেসি পাওয়ার নিয়ে তারা যা বলেছেন, তা আমাদের দেশে চালু নেই। তবে নির্বাচনে সেনাবাহিনী টাস্কফোর্স ও স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে নিয়োজিত থাকবে।

বেগম জিয়ার জামিন বিষয়ে তিনি বলেন, আমরা বলেছি, তত্ত্বাবধায়ক সরকার ২০০৭ সালে এ মামলা করেছে। এটি আগেই নিষ্পত্তি করা যেতো, কিন্তু তারা দেরি করেছেন। এখন আদালত তাকে দণ্ড দিয়েছেন। তারা আদালতের কাছে জামিন চাইতে পারেন, আদালত যদি তাদের জামিনে মুক্তি দেয়, তাতে আমাদের কোনো আপত্তি নেই।’

তিনি বলেন, তাদের সাত দফার অধিকাংশ দাবি মেনে নিতে আমাদের নেত্রী সম্মত হয়েছেন। তবে তারা এমন কিছু নিয়ে এসেছেন, সেগুলো নির্বাচন পিছিয়ে দেয়ার একটা বাহানা।

এর আগে বেলা ১১টায় গণভবনে ঐক্যফ্রন্টের সাথে সংলাপে বসেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সংলাপে ঐক্যফ্রন্টের ১১ সদস্যের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন গণফোরাম সভাপতি ও ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন।

ঐক্যফ্রন্টের অন্য সদস্যদের মধ্যে রয়েছেন- বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন ও মওদুদ আহমদ, গণফোরামের কার্যকরী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু এবং জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সুলতান মো. মনসুর আহমেদ, জেএসডির আসম আবদুর রব, আবদুল মালেক রতন, নাগরিক ঐক্যের মাহমুদুর রহমান মান্না ও এস এম আকরাম।

অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই আলোচনায় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ১১ সদস্যের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন।

এর আগে সাত দফা দাবিতে ঐক্যফ্রন্টের চিঠিতে সাড়া দিয়ে গত ১ নভেম্বর গণভবনে প্রথম দফায় সংলাপে বসেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা।

ওই সংলাপ শেষে ড. কামাল হোসেন সংলাপ নিয়ে তারা সন্তুষ্ট হলেও বিশেষ কিছু না পাওয়ার কথা বলেছিলেন। তবে ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুম ইসলাম সন্তুষ্ট নয় বলে জানিয়েছিলেন।

সে সময়ই ঐক্যফ্রন্টের দাবির প্রেক্ষিতে আবারও ছোট আকারে সংলাপে বসতে সম্মত হয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

Bootstrap Image Preview