Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৯ সোমবার, নভেম্বার ২০১৮ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

খাসোগি হত্যায় ‘বলির পাঁঠা’ কে এই জেনারেল আসিরি?

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২১ অক্টোবর ২০১৮, ০৬:২৮ PM
আপডেট: ২১ অক্টোবর ২০১৮, ০৬:২৮ PM

bdmorning Image Preview
সংগৃহীত ছবি


তুরস্কের ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটের ভিতরে সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যার ঘটনায় সৌদি গোয়েন্দা দফতরের উপ প্রধান আহমেদ আল আসিরিসহ কয়েকজনকে বরখাস্ত করা হয় বলে জানিয়েছিল দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন চ্যানেল।

এদের মধ্যে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের ঘনিষ্ট সহযোগী সৌদ আল কা‌হ্তানিও ছিলেন বলে সৌদি খবরে উল্লেখ করা হয়েছে। সতেরো দিন ধরে ক্রমাগত অস্বীকার করে যাওয়ার পর অবশেষে সৌদি কর্তৃপক্ষ স্বীকার করে যে ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটের ভিতরে খাসোগিকে হত্যা করা হয়েছে।

 

প্রাথমিক তদন্তের বরাত দিয়ে ওই খবরে বলা হয়েছে, কনস্যুলেটে জামাল খাসোগজি মারামারিতে জড়িয়ে পড়লে তখন তার মৃত্যু হয়।

কে এই আহমেদ আল আসিরি?

মেজর জেনারেল আহমাদ আল আসিরিকে যুবরাজের ঘনিষ্ঠদের মধ্যে অন্যতম প্রধান একজন ব্যক্তি মনে করা হয়। ২০১৫ সালের মার্চে ইয়েমেনর সাথে যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর আলোচনায় আসেন জেনারেল আসিরি। ইয়েমেনে হুথি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের সংঘাতের সময় সৌদি আরবের প্রধান মুখপাত্র হিসেবে দেখা যায় তাকে। সেসময় বর্তমান সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান ছিলেন সৌদি প্রতিরক্ষামন্ত্রী।

সৌদি মুখপাত্র

আরবি, ইংরেজি ও ফরাসী ভাষায় দক্ষ জেনারেল আসিরি ইয়েমেনে সৌদি জোটের বোমা হামলার সমালোচনার জবাব দেয়ার সময় নিজের বাকপটুতায় সাংবাদিকদের মুগ্ধ করেন। কিন্তু ২০১৭ সালের মার্চে লন্ডনে এক সফরের সময় বিক্ষোভকারীরা তার বক্তব্যের সময় ডিম ছুড়ে মারায় নিজের মেজাজ হারিয়ে বসেন আসিরি।

ওই ঘটনার একটি ভিডিওচিত্র থেকে দেখা যায় বিক্ষোভকারীদের ছুঁড়ে মারা ডিমের আঘাতে ক্ষিপ্ত হয়ে বিক্ষোভকারীদের প্রতি অসৌজন্যমূলক ইঙ্গিত করেন আসিরি। এর কিছুদিন পরেই সৌদি আরবেন রাষ্ট্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা ‘জেনারেল ইন্টেলিজেন্স ডিরেক্টরেট’ এর সহ-প্রধান নিযুক্ত হন।

সামরিক অভিজ্ঞতা

সৌদি গণমাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী, জেনারেল আসিরির জন্ম দক্ষিণ-পশ্চিম আরবের আসির প্রদেশের মুহাইলি নামক ছোট্ট একটি শহরে। সৌদি সেনাবাহিনীতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণএকজন ব্যক্তি মনে করা হয় তাকে। তার উত্থানের কারণ হিসেবে সেনাবাহিনীতে তার অবদানকে মনে করা হয়। যুক্তরাষ্ট্রের স্যান্ডহার্স্ট ও ওয়েস্ট পয়েন্ট এবং ফ্রান্সের সেন্ট. সাইরের মত মর্যাদাপূর্ণ পশ্চিমা মিলিটারি অ্যাকাডেমিতে প্রশিক্ষণ নেয়ার অভিজ্ঞতা রয়েছে আসিরি'র।

অবশেষে পতন

জটিল কূটনীতিক সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষেত্রে জেনারেল আসিরিকে দূরদর্শী ক্ষমতাসম্পন্ন এবং আস্থাশীল একজন কর্মকর্তা মনে করা হলেও জামাল খাসোগি হত্যাকাণ্ডে তার ভূমিকা নিয়ে রহস্য রয়ে গেছে।

মার্কিন গণমাধ্যম নিউইয়র্ক টাইমসে একটি সূত্রের বরাত দিয়ে জানানো হয়, সাংবাদিক জামাল খাসোগিকে সৌদি আরবে জিজ্ঞাসাবদের উদ্দেশ্যে আটক করার জন্য যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের মৌখিক অনুমতি পান আসিরি।

শনিবার আসিরির চাকরিচ্যুতির খবর প্রকাশের আগে নিউইয়র্ক টাইমস জানায় সাংবাদিক জামাল খাসোগির অন্তর্ধান ও হত্যার ঘটনায় প্রতিপত্তিশালী যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের ওপর থেকে অভিযোগের তীর সরাতে জেনারেল আসিরিকে দোষারোপ করার পরিকল্পনা করছে সৌদি আরব কর্তৃপক্ষ। সূত্র: বিবিসি

Bootstrap Image Preview