Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৯ শুক্রবার, অক্টোবার ২০১৮ | ৪ কার্তিক ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

দোকানের সামনে গাড়ি রাখায় চালককে পিটিয়ে হত্যা করল মালিক

বিডিমর্নিং : নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১:০৭ AM
আপডেট: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১:৩৮ AM

bdmorning Image Preview


সাভারের ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে দোকানের সামনে গাড়ি রাখায় এক হিউম্যান হলার চালককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।

মঙ্গলবার সকাল সাতটার দিকে মহাসড়কের নিরিবিলি বাসস্ট্যান্ড এলাকার মেসার্স জুয়েল স্টিল অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কশপের সামনে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে। ঘটনার পর থেকে দোকান বন্ধ রেখে অভিযুক্ত মালিক ও তার ভাই পলাতক রয়েছেন।

নিহতের নাম আসলাম পাঠান। তিনি মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রীনগর থানার বাড়ইখালী খোরা কলেজ এলাকার রশিদ পাঠানের ছেলে।

নিহতের ভাই সোহেল পাঠানের অভিযোগ, চার-পাঁচদিন আগে আমার ভাই নিরিবিলি বাসস্ট্যান্ডের মেসার্স জুয়েল স্টিল অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কশপের সামনে গাড়ি রেখেছিল। এ নিয়ে দোকান মালিক জুয়েল গাড়ি সরাতে বললে আমার ভাই গাড়িটি সরিয়ে দিয়ে সড়কের অপর পাশে রাখেন। কিন্তু মঙ্গলবার সকালে আমার ভাই গাড়িটি আনতে গেলে দোকান মালিক জাকির হোসেন জুয়েল ও তার ভাই রুবেল লোহার রড ও দিয়ে তাকে পিটিয়ে হত্যা করে। আমি এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই।

প্রত্যক্ষদর্শী রফিকুল ইসলাম নামে এক পরিবহন চালক জানান, সকালে দোকানের সামনে গাড়ি রাখা নিয়ে মেসার্স জুয়েল স্টিল অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কশপের মালিক জাকির হোসেন জুয়েলের সঙ্গে হিউম্যান হলারের মালিক আসলামের কথা কাটাকাটি হয়। এ সময় জুয়েল ও তার ভাই রুবেল আসলামকে দোকানের ভেতর ধরে নিয়ে লোহার রড এলোপাথাড়ি মারধর করে। একপর্যায়ে আসলাম মাটিতে লুটিয়ে পড়লে তাকে একটি ভ্যানে করে পার্শ্ববর্তী গণস্বাস্থ্য হাসপাতালে পাঠিয়ে দিয়ে সটকে পড়েন জুয়েল ও রুবেল। হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক আসলামকে মৃত ঘোষণা করেন।

আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) বিজন কুমার দাস বলেন, পিটিয়ে হত্যার খবর শুনে আমরা ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছি।

তিনি আরও জানান, হত্যাকাণ্ডের পর থেকে দোকান মালিক পলাতক থাকায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। তবে এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পর হত্যাকারীদের গ্রেফতারে অভিযান পরিচালনা করা হবে।

Bootstrap Image Preview