Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২২ শনিবার, সেপ্টেম্বার ২০১৮ | ৭ আশ্বিন ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

বন্ধের আহ্বান জানালেও এখনও বিক্রি হচ্ছে কুকুর-বিড়ালের মাংস

মোঃ মাসুদ রানা
সাব এডিটর
প্রকাশিত: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১:২৪ AM আপডেট: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১:২৪ AM

bdmorning Image Preview


ভিয়েতনামের রাজধানী হ্যানয়ের বাসিন্দাদের কুকুরের মাংস না খাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির কর্মকর্তারা। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশ ভিয়েতনাম পর্যটন ও স্ট্রিট ফুডের জন্য বিশ্বজুড়ে সমাদৃত। দেশটির ফা নুডুলস স্যুপ এবং পাতে বান মি স্যান্ডউইচের মেন্যু প্যারিস থেকে পিটাসবার্গ পর্যন্ত পৌঁছে গেছে।

তবে ভিয়েতনামের জনপ্রিয় খাবারের তালিকায় রয়েছে কুকুর ও সাপের মাংস। কিন্তু প্রাণি অধিকারকর্মীরা ও ভিয়েতনামের হ্যানয় শহরের কর্তৃপক্ষ চাচ্ছে, খাদ্য তালিকা থেকে যেন এই দুটো খাবার বাদ দেয়া হয়।

তারা বলেছেন, কুকুরের মাংস খেলে জলাতঙ্কের মতো রোগ ছড়ানো ছাড়াও শহরটির সুনাম খুণ্ন হতে পারে।

দ্য হ্যানয় পিপলস কমিটি বলছে, সভ্য এবং আধুনিক রাজধানী হিসেবে কুকুরের মাংস খাওয়ার অভ্যাস শহরটিকে কলঙ্কিত করতে পারে। এই মাংস জলাতঙ্ক এবং লেপটোসপাইরোসিসের মতো ক্ষতিকারক রোগ ছড়াবে।

দেশটির রাজধানী হ্যানয়ে এখনো এক হাজারের বেশি দোকানে কুকুর এবং বিড়ালের মাংস বিক্রি করা হয়।

এছাড়াও হ্যানয়ের বাসিন্দাদের বিড়ালের মাংস খাওয়া বন্ধ করার আহ্বান জানিয়েছে। যদিও বিড়ালের সংখ্যা কম তারপরও মাংস পাওয়া যায় শহরটিতে। কমিটি বলছে, অনেক প্রাণীকে নিষ্ঠুরভাবে হত্যা করা হচ্ছে শহরে।

ভিয়েতনামের রাজধানী হ্যানয়ে এখনো ৪ লাখ ৯০ হাজারের মতো কুকুর এবং বিড়াল রয়েছে। যার অধিকাংশই পোষ্য।

Bootstrap Image Preview