Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২১ শুক্রবার, সেপ্টেম্বার ২০১৮ | ৬ আশ্বিন ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

কক্সবাজার জেলাব্যাপী মাদক বিরোধী অভিযানে নারীসহ আটক ২, উদ্ধার ১৬ টি অস্ত্র

বিডিমর্নিং : আবছার কবির আকাশ, কক্সবাজার প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৪:২৪ AM আপডেট: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৪:২৫ AM

bdmorning Image Preview


কক্সবাজার জেলাব্যাপী মাদক বিরোধী যৌত টাস্কফোর্সের অভিযানে নারী সহ দু’জনকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া অভিযানে ১হাজার ৫পিস ইয়াবা, ১টি মোটরসাইকেল, ৪টি রামদা, ২টি কিরিচ, ১০টি ছুরি ও ২টি দামা সহ সর্বমোট মাদক বিক্রির ২৯লক্ষ ১০হাজার ৭শ' ৫৭টাকা জব্দ করা হয়।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর সূত্র জানিয়েছে, গত ৯ ও ১০ সেপ্টেম্বর কক্সবাজার, রামু ও টেকনাফে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীদের বাড়িতে যৌত অভিযান পরিচালনা করা হয়।এসময় জেলা প্রশাসন, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, পুলিশ, বিজিবি, র‍্যাব, ব্যাটালিয়ন আনসার ও গোয়েন্দা সংস্থার সমন্বয়ে টেকনাফ উপজেলার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত মাদক ব্যবসায়ী শীলবুনিয়া পাড়ার হাজী সাইফুল করিম, পুরান পল্লান এলাকার পৌর কাউন্সিলর কোহিনুরের স্বামী শাহ আলম, নাজিরপাড়ার জিয়াউর রহমান, এনামুল হক মেম্বার, পৌর বিএনপির সম্পাদক দক্ষিণ জালিয়া পাড়ার রেজাউল করিম উরফে রেজা, মৃত আব্দুল গাফফারের পুত্র মোহাম্মদ মোজাম্মেল, সাবরাং এলাকার উপজেলা বিএনপির আহবায়ক শামসুল আলম মার্কিন, হ্নীলার ইউপি সদস্য মোঃ নুরুল হুদা,জামাল হোসেন, জাদিমুরার হাসান আবদুল্লাহ, শাহ পরীর দ্বীপের আনিসুর রহমান ইয়াহিয়া ও রেজাউল করিম রেজু মেম্বারের বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে।

অভিযানে রেজু মেম্বারের বাড়ি হতে মাদক বিক্রির ২লক্ষ ৪৬হাজার ৫শ টাকা জব্দ  করা হয়। এঘটানায় রেজু মেম্বার ও তার অপর ভাই আব্দুল মাজেদকে পলাতক দেখিয়ে ফরিদ আহমেদকে গ্রেফতার করে সংশ্লিষ্ট ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

অপরদিকে একই দিনে কক্সবাজার সদরের লারপাড়া এলাকার আলোচিত মাদক ব্যবসায়ী মোঃ শাহজান আনসারী ও দু’সহোদর রশিদ আনসারী ও আবু সুফিয়ান আনসারী, লাল মোহাম্মদ উরফে দালাল মাল মাম্মদের বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় লাল মোহাম্মদের বাড়ি থেকে দেশীয় ১৬টি অবৈধ অগ্নেয়াস্ত্র এবং ৪লক্ষ ৪৭হাজার ৭শ' ৫৭ টাকা ও ইয়াবা সহ লাল মোহাম্মদের স্ত্রী সায়েরা খাতুনকে আটক করা হয়েছে। জেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কর্তৃক তাকে ছয় মাসের সাজা প্রদান করা হয়। তবে পৃথক ভাবে অস্ত্র মামলা দায়ের করা হয়েছে।এছাড়া রামু জোয়ারিয়ানালার চেয়ারম্যান এমএম নুরুচ্ছফার বাড়িতেও অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে।

টাস্কফোর্সের অভিযানে দু’দিনে মোট ৭টি নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়েছে।

জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ সহকারী পরিচালক সোমেন মন্ডল জানান, উক্ত অভিযানে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয়ের অতিরিক্ত পরিচালক মুজিবুর রহমান পাটোয়ারী, বিভাগীয় গোয়ান্দা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক একেএম শওকত হোসেন, কক্সবাজার পুলিশের সিনিয়র এএসপি সাইফুল ইসলাম, টেকনাফ থানার অফিসার ইনচার্জ রনজিত বড়ুয়া সহ বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

Bootstrap Image Preview