Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২১ শুক্রবার, সেপ্টেম্বার ২০১৮ | ৬ আশ্বিন ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

‘ত্বকে ক্ষত, ফুলে ছিল হাত’ থাইরয়েডে আক্রান্ত ছিল মোনালিসা !

মোঃ মাসুদ রানা
সাব এডিটর
প্রকাশিত: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০১:৫৭ PM আপডেট: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০২:০৩ PM

bdmorning Image Preview


পাঁচশ বছর আগে লিওনার্দো দ্য ভিঞ্চির আঁকা পোট্রেট মোনালিসা সম্ভবত বিশ্বের সবেচেয়ে আলোচিত চিত্রকর্ম। ফ্রান্সের ল্যুভ মিউজিয়ামে এখনও প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ শুধু মোনালিসার রহস্যময় হাসি দেখতে আসেন।

এখন আসা যাক মুল কথায়, আজকে মোনালিসার হাসি নিয়ে কথা হচ্ছে না কথা হচ্ছে তার রোগ নিয়ে,সম্প্রতি কিছু চিকিৎসক ধারনা করছেন, মোনালিসা থাইরয়েডের রোগে ভুগছিলেন!

মায়ো ক্লিনিক প্রসিডিংস জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণায় ড. মানদিপ মেহেরা নামের এক কার্ডিওলজিস্ট দাবি করেন, এই চিত্রকর্মের বেশকিছু বৈশিষ্ট্য দেখে মনে হয় মোনালিসার থাইরয়েডের রোগ ছিল।

১৫০৩ সালের দিকে লিসা জেরার্দিনি নামের এক নারীর প্রতিকৃতি আঁকেন দ্যা ভিঞ্চি, যা বর্তমানে মোনালিসা নামে পরিচিত। ২০০৪ সালে কিছু চিকিৎসক ধারনা করেন, লিসার হাইপারলিপিডেমিয়া নামের একটি রোগ ছিল। চিত্রকর্মে এই রোগের বেশ কিছু লক্ষন ছিল, যেমন ডান হাতটি ফুলে থাকা এবং ত্বকে ক্ষত।

কিন্তু এটাও জানা যায় যে লিসা বেঁচে ছিলেন ৬৩ বছর বয়স পর্যন্ত। ওই আমলে হাইপারলিপিডেমিয়া নিয়ে এতদিন বেঁচে থাকা সম্ভব ছিল না। তাই নতুন এই গবেষণার লেখক ধারনা করছেন, লিসার হাইপোথাইরয়েডিজম থাকতে পারে।

হাইপোথাইরয়েডিজম এমন একটি রোগ, যেখানে রোগীর থাইরয়েড গ্রন্থি যথেষ্ট হরমোন উৎপন্ন করে না। এর লক্ষণগুলো হলো, ক্লান্তি, ওজন বাড়া, ত্বক শুষ্ক এবং হলদেটে হয়ে যাওয়া, শরীরের গিঁটে গিঁটে ফুলে যাওয়া এবং চুল পাতলা হয়ে যাওয়া।

মোনালিসা চিত্রকর্মটিতে এর বেশ কিছু লক্ষণই দেখা যায়। যেমন হলদেটে ত্বক, পাতলা চুল এবং ভ্রু না থাকা।

এই ছবিটি আঁকার কিছুদিন আগেই সন্তান জন্ম দিয়েছিলেন লিসা। সে কারণেও তার হাইপোথাইরয়েডিজম হতে পারে বলে চিকিৎসকরা ধারনা করেন।

তবে মেহরা জানান, এটা মনে রাখা জরুরী যে এই চিত্রকর্মটি অনেক প্রাচীন এবং লিসার যে আসলেই হাইপোথাইরয়েডিজম ছিল, তা নিশ্চিত হওয়ার কোনো উপায় আর নেই।

Bootstrap Image Preview