Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২২ শনিবার, সেপ্টেম্বার ২০১৮ | ৭ আশ্বিন ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

এ কেমন নিষ্ঠুর মা?

আরিফ চৌধুরী শুভ
সাব এডিটর
প্রকাশিত: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০:১৫ AM আপডেট: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০:১৫ AM

bdmorning Image Preview


অভাবের সংসার, তাই বলে এত নিষ্টুর মা। নিজেদের ব্যর্থতার দায় কেন সন্তানকে নিতে হবে? দুধের টাকা যোগাতে না পারায় ঢাকার দোহার উপজেলায় দুই মাসের শিশু সন্তানকে লবণ খাইয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে এক মায়ের বিরুদ্ধে। গতকাল সন্ধ্যার দিকে উপজেলার উত্তর জয়পাড়া মিয়াপাড়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার উত্তর জয়পাড়া গ্রামের বাসিন্দা মো. বাচ্চু (৩০) ও  স্ত্রী সাথী আক্তার (২১)। তিন বছর আগে পারিবারিকভাবে তাদের বিয়ে হয়। তাদের ঘরে সাবিহা আক্তার নামে দুই বছরের একটি মেয়ে সন্তান ও মো. সায়েম নামে দুই মাসের একটি ছেলে সন্তান রয়েছে।

মো. বাচ্চু গণমাধ্যমকে বলেন, আমাদের অভাবের সংসার। সাথী আমাকে সন্তানের দুধের কথা বলেছিল। আনতে পারিনি। দুধের টাকা যোগাতে না পারায় রাগে-ক্ষোভে ছেলেকে মেরে ফেলেছে সে।

বাচ্চু রাজমিস্ত্রির কাজ করেন। অভাবের সংসার তাদের। গতকাল রোববার সকালে সায়েমের দুধ আনার জন্য স্বামীকে বলে সাথী। বিকেল পাঁচটার দিকে স্বামী দুধ না নিয়ে বাড়িতে আসলে সন্তানের দুধের টাকা যোগানোর জন্য আশপাশের কয়েকজনের কাছে ধর্না দেয় সাথী।

টাকা যোগাতে না পেরে সন্ধ্যার দিকে বাড়িতে গিয়ে রাগে-ক্ষোভে দুই মাসের সন্তান সায়েমকে লবণ খাইয়ে দেয় সে। তাৎক্ষণিকভাবে শিশুটির শ্বাসকষ্ট শুরু হলে সাথী নিজেই সায়েমকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে নেয়ার পর শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করে কর্তব্যরত চিকিৎসক। খবর পেয়ে হাসপাতালে যান বাবা মো. বাচ্চু। পরে সোমবার সকালে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। সেখান থেকে মা সাথী আক্তারকে আটক করে।

দোহার থানার ওসি (তদন্ত) ইয়াসিন মুন্সী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, অভাবের সংসারে সন্তানের দুধের টাকা যোগাতে না পেরে রাগে ক্ষোভে নিজের সন্তানকে লবণ খাইয়ে হত্যা করেছে মা। জিজ্ঞাসাবাদে সাথী আক্তার বিষয়টি স্বীকারও করেছে পুলিশের কাছে। তাকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় একটি মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

Bootstrap Image Preview