Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৪ সোমবার, সেপ্টেম্বার ২০১৮ | ৯ আশ্বিন ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

'আমার কুদ্দুসকে নৌকা মার্কায় ভোট দিন'

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৭ এপ্রিল ২০১৮, ০৫:১৩ PM আপডেট: ১৭ এপ্রিল ২০১৮, ০৫:১৩ PM

bdmorning Image Preview


আবু জাফর সিদ্দিকী, নাটোর প্রতিনিধি: 

নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার ব্যস্ততম বনপাড়া বাইপাস কালিকাপুর স্কুল মাঠ সংলগ্ন সড়কের পাশে একটি বিলবোর্ডের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। বিলবোডের ছবিটি ‘টক অব দ্য নাটোরে’ পরিণত হয়েছে। যেটা খোদ আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের মধ্যে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। 

নববর্ষের শুভেচ্ছা জানানো ওই বিলবোর্ডে লেখা আছে, ‘আমার কুদ্দুসকে নৌকা মার্কায় ভোট দিন, লেখাটির নিচে আছে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাম ও আঙ্গুল উঁচিয়ে রাখা একটি ঐতিহাসিক ছবি ব্যবহার করা হয়েছে। ছবিটি নিয়ে তীব্র আলোচনা-সমলোচনা শুরু হয়েছে সাংসদ আব্দুল কুদ্দুসের নির্বাচনী এলাকায়।

এই বিলবোর্ডকে ঘিরেই পক্ষে বিপক্ষের নেতাকর্মীদের মধ্যে তীব্র আলোচনা- সমলোচনায় মেতেছে। আর ফেসবুকে এই বিলবোর্ডটির ছবি ভাইরাল হয়েছে।

ফেসবুকে সাগর মাহমুদ লিখেছেন, খবর খারাপ নাকি। নাসরিন সুলতানা লিখেছেন, এটা কোথাকার পোষ্টার ? হাসতে হাসতে মরে যাচ্ছি। মুক্তিযোদ্ধার সন্তান মোস্তাফিজুর রহমান সেন্টু লিখেছেন, আওয়ামী লীগ বেচা শেষ /এবার নিলামে বঙ্গবন্ধু। রক্ষা কর আওয়ামী লীগকে।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাবেক সভাপতি আহম্মেদ আলী বলেন , গুরুদাসপুর – বড়াইগ্রামের মানুষ সাংসদ কুদ্দুসকে প্রত্যাখান করেছে। জনগণের সহানুভূতি অর্জনের জন্য বঙ্গবন্ধুর উদ্ধৃতি দিয়ে তিনি এ বিলবোর্ড টানিয়েছে । এসব বিলবোর্ড দিয়ে সাংসদ কুদ্দুস তার শেষ রক্ষা করতে পারবে না।

বড়াইগ্রাম উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা ডাঃ সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারী এবং গুরুদাসপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র শাহ নেওয়াজ আলী মোল্লাসহ কয়েকজন নেতাকর্মী জানান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামের উদ্ধৃতি দিয়ে ব্যানারটি প্রস্তুত করেছেন প্রবীন রাজনীতিবিদ বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ট সহচর নাটোর-৪ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুসের অনুসারিরা। সরাসরি জাতির জনককে উদ্ধৃত করে এমন ভোট প্রার্থনা নজিরবিহীন। একইসাথে, জাতির জনকের কাল্পনিক জবানীতে এই ভোট প্রার্থনার মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুকে চরম অসম্মান করা হয়েছে বলে তারা মনে করছেন।

বড়াইগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. মিজানুর রহমান জানান, ‘আমার কুদ্দুসকে নৌকায় মার্কায় ভোট দিন’-বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উদ্ধৃতি দিয়ে এই বিলবোর্ডটি আমরা বানিয়ে লাগিয়েছি। এই কথাটির পিছনের ইতিহাস জানতে হবে । ১৯৭৪ সালে আব্দুল কুদ্দুসকে রাজশাহী জেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে গুলি করে দুর্বৃত্তরা।

সে সময় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতিসংঘের অধিবেশনে বাংলাদেশের প্রথম সরকার প্রধান হিসেবে যোগদান করেন । আব্দুল কুদ্দুসের গুলিবিদ্ধ হওয়ার খবর পেয়ে সে সময় বঙ্গবন্ধুর নির্দেশে আওয়ামী লীগের নেতারা উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে হেলিকপ্টার যোগে ঢাকায় নিয়ে যান ।

সে সময় সংকটাপূর্ণ অবস্থায় পিতার নাম না পাওয়ায় হাসপাতালের রেজিষ্টার খাতায় প্রযত্নে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাম লেখা হয় । বঙ্গবন্ধু সংসদ সদস্য কুদ্দুসকে সন্তানের মতোই দেখতেন এবং স্নেহ করতেন। সেই আলোকেই আমরা কথাটি লিখেছি।

এ বিষয়ে নাটোর-০৪ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল কুদ্দুস জানান, আমি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ট সহচর হিসেবে রাজশাহী বিভাগে আওয়ামী লীগকে সংগঠিত করেছি। চারবার সাংসদ নির্বাচিত হয়েছি। গুরুদাসপুর ও বড়াইগ্রামকে আওয়ামী লীগের দুর্গে পরিণত করেছি। আবারো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হবো-ইনশাল্লাহ। বিলবোর্ড নেতাকর্মীরা লাগিয়েছে। আমার জনপ্রিয়তায় ভীত হয়ে অপপ্রচারকারীরা বিলবোর্ডের ভাষা না বুঝেই সমলোচনা শুরু করেছে ।

Bootstrap Image Preview