Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৫ সোমবার, অক্টোবার ২০১৮ | ৩০ আশ্বিন ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

আরপিও অ্যাক্ট বলছে নির্বাচনে অযোগ্য খালেদা

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৮, ০৬:২৮ PM
আপডেট: ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৮, ০৬:২৮ PM

bdmorning Image Preview


খায়রুল বাশার-

সংসদ নির্বাচন পরিচালনার জন্য ১৯৭২ সালে প্রণীত হয় গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ। বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর ২০০৯ সালে এই অধ্যাদেশ সংসদে পাস হয়। এ পর্যন্ত ১১ বার গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশে সংশোধন করা হয়েছে।

সর্বশেষ ২০১৩ সালের ২৮ অক্টোবর গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ (সংশোধন) আইন ২০১৩ বিল পাস হয়। 'রিপ্রেজেন্টেশন অব দ্য পিপল (অ্যামেন্ডমেন্ট) অ্যাক্ট বলছে আসন্ন একাদশ সংসদ নির্বাচনে অযোগ্য হিসেবে বিবেচিত হবে খালেদা জিয়া।

আরপিও অ্যাক্ট অনুযায়ী, 'সংবিধানের ৬৬ ধারা অনুযায়ী সেখানে পরিষ্কার বলা আছে, কোন ব্যক্তি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হইবার কিংবা সংসদ সদস্য হইবার যোগ্য হইবেন না, যদি তিনি নৈতিক স্খলনজনিত কোন ফৌজদারী অপরাধে দোষী সাব্যস্ত হইয়া দুই বৎসরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত হন এবং তাঁহার মুক্তিলাভের পর পাঁচ বৎসরকাল অতিবাহিত না হইয়া থাকে।

সম্প্রতি ৮ ফেব্রুয়ারি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে জিয়া অরফানেজ ট্রাষ্ট দুর্নীতি মামলায় ৫ বছরের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। বিএনপির আইনজীবীরা বলছে তারা আপিল করবে।

গণমাধ্যম ও বিশ্লেষকদের সূত্র থকে জানা যায়, রায়ের সত্যায়িত কপি আগে হাতে পেলে তবেই খালেদার আইনজীবীরা আপিল করতে সক্ষম হবে। তবে সত্যায়িত কপি পাওয়ার আগে আগে টাইপ করা ট্রু কপি পেলেই তারপর আপিল করার জন্য সত্যায়িত কপি পেতে সময় লাগবে না।

এখন, প্রশ্ন হচ্ছে তার যে সাজা হয়েছে তার সীমা ৫ বছর। সে নারী এবং তার বয়সের কথা বিবেচনায় রেখে সে জামিন পেলেও আরপিও অ্যাক্ট অনুযায়ী সে নির্বাচনে অযোগ্য।

তবে, এ ক্ষেত্রে তার ভবিষ্যৎ নির্ভর করছে আদালতের উপর। তবে আসন্ন একাদশ নির্বাচনে খালেদা জামিনে থাকলে নির্বাচন প্রচারণায় অংশগ্রহণ করলে নির্বাচন পরিস্থিতি হবে একরকম আর যদি সে জামিন না পেয়ে জেলে থাকে তাহলে হবে অন্যরকম চিত্র।

আমার পূর্বানুমান বলছে, যাই হোক একাদশ জাতীয় নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি। সে ক্ষেত্রে কৌশলের পরিবর্তন ঘটতে পারে দলটির অভ্যন্তরে। নির্দলীয় সরকারের অধীনের দাবি থেকে তারা সরে গিয়ে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে তারা আলোচনায় বসতে পারে। নির্বাচনের আগের বছর রাজনীতির সব সমীকরণ পরিবর্তন ঘটে বেগম জিয়া কেন্দ্রিক রাজনীতির বছর শুরু হল তার জেলে যাওয়াকে কেন্দ্র করে। কৌশলগত কারণে শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি গ্রহন করে দলটি। যা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার ইতিবাচক পদক্ষেপ হিসেবে অর্থ নির্মাণ করে।

Bootstrap Image Preview