Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৭ সোমবার, ডিসেম্বার ২০১৮ | ৩ পৌষ ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

পুলিশি তল্লাশির নামে ১০টি গাড়িতে ডাকাতি; স্বর্ণালংকারসহ লক্ষাধিক টাকা লুট  

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৮, ১০:৩৬ PM
আপডেট: ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৮, ১০:৩৬ PM

bdmorning Image Preview


বিডিমর্নিং ডেস্ক-

পুলিশের লোক পরিচয় দিয়ে গাড়ি তল্লাশির নামে  ১০টি গাড়িতে গণডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। আজ সোমবার ভোরে কুষ্টিয়ার রাজবাড়ী সড়কের খোকসায় গাছের গুঁড়ি ফেলে গাড়িতে উঠে এই ডাকাতি করা হয়।  এসময় ঘটনাস্থলের ২০০ গজের মধ্যে পিকাপসহ পুলিশ উপস্থিত থাকলেও কোনো পদক্ষেপ নেয়নি।

জানা যায়, ভোর ৪টার দিকে সংঘবদ্ধ ডাকাত দল কুষ্টিয়া-রাজবাড়ী সড়কের খোকসার ফুলতলা মোড়ে গাছের গুঁড়ি ফেলে রাস্তা বন্ধ করে দেয়। ডাকাতরা নিজেদের পুলিশের লোক পরিচয় দিয়ে গাড়ি তল্লাশি করবে বলে জানায়।

মুহূর্তের মধ্যে ঘটনাস্থলে ঢাকা থেকে কুমারখালীর উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসা লালন পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী নৈশকোচসহ প্রায় ১০টি গাড়ি দাঁড়িয়ে যায়। এসব গাড়িতে পুলিশি তল্লাশির নামে ঘণ্টা ধরে চলে গণডাকাতি।

এ সময় খোকসা থানা পুলিশের একটি টহল দল ঘটনাস্থলের ২০০ গজ পূর্ব দিকে দাঁড়িয়ে ছিল। একপর্যায়ে পরিবহনটির হেলপার ও এক যাত্রী দৌড়ে গিয়ে টহল পুলিশের এএসআই দীপঙ্করকে খবর দেন। অবশেষে ঘটনাস্থলে আসে পুলিশ।

কিন্তু ততক্ষণে যাত্রীদের স্বর্ণালংকার, নগদ টাকাসহ কয়েক লাখ টাকার মালামাল নিয়ে ৫/৬ জনের ডাকাত দলটি নিরাপদে পালিয়ে যায়। এ সময় ক্ষুব্ধ যাত্রী ও পরিবহন শ্রমিকরা পুলিশের সঙ্গে বাক-বিতণ্ডায় জড়ায়।

সকালে রাস্তা থেকে গাছের গুঁড়ি অপসারণের পর যোগাযোগ স্বাভাবিক হয়। এ ঘটনার পর সোমবার সকালে পুলিশের এসআই ইদ্রিস পরিবহনটির একাধিক যাত্রীকে মোবাইল ফোনে হুমকি দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। পুলিশের এই সদস্য যাত্রীদের জানায় তারা ঘটনাস্থলে উপস্থিত পুলিশের সঙ্গে খারাপ আচরণ করেছে।  ডাকাতির ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন পুলিশের এসআই ইদ্রিস আলী।

Bootstrap Image Preview