Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৬ মঙ্গলবার, অক্টোবার ২০১৮ | ১ কার্তিক ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

শুদ্ধিকরণের নামে কিশোরীকে ১১ বছর ধর্ষণ

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৮, ০৩:৪৮ PM
আপডেট: ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৮, ০৩:৪৮ PM

bdmorning Image Preview


আন্তর্জাতিক ডেস্ক-

ভারতের রাজধানী নয়া দিল্লিতে শুদ্ধিকরণের নামে এক কিশোরীকে ১১ বছর যাবত ধর্ষণ করে গেছে এক ধর্মসাধক (তান্ত্রিক)।

অন্ধবিশ্বাসের কারণেই সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের এক কিশোরীকে এই ধর্ষণের শিকার হতে হয়৷ পরিবারের সামনেই তান্ত্রিকের হাতে বার বার ধর্ষণের শিকার হতে হয় ওই কিশোরীকে৷

কি ঘটেছিল? সূত্রের খবর, এই ঘটনা দিল্লির সুভাষ প্লেস থানা এলাকার৷ যেখানে ১১বছর ধরে শুদ্ধিকরণের নামে এক তান্ত্রিক ধর্ষণ করে যায়৷

নির্যাতিতার বক্তব্য অনুযায়ী, তার পরিবার কয়েক বছর আগে তার খুড়তুতো বোনকে মেরে ফেলে৷ যার ভয়ে সে তার সঙ্গে হয়ে চলা নির্যাতনের কথা কাওকে বলেনি৷ দিল্লির কপিলবিহারে এলাকার বাসিন্দা দেব শর্মা, তার স্ত্রী এবং বোন ১১বছর আগে এমন কাণ্ড করে যা শুনে হতবাক সকলেই৷

নির্যাতিতার মতে, ১১ বছর আগে তার বাড়িতে এক তান্ত্রিকের আসা যাওয়া শুরু হয়৷ বাড়িতে কিছুদিন পূজার্চনা চলার পর ওই কিশোরীকে তান্ত্রিকের সঙ্গে একটি ঘরে বন্ধ করে দেয়৷ সেখানেই তান্ত্রিকের হাতে বার বার ধর্ষণের শিকার হতে হয় ১৪ বছরের ওই নাবালিকাকে৷ সে প্রতিবাদ করলে তাকে জানানো হয়, এসবই তার শুদ্ধিকরণের জন্য করা হচ্ছে৷

এরপর থেকে যখনই সেই তান্ত্রিক তার বাড়িতে আসতো, তখনই তার ওপর এই অকথ্য অত্যাচার চলত৷ টানা ১১ বছর এই অত্যাচার চলার পর একদিন পুলিশের কাছে গিয়ে সবকিছু খুলে বলে ওই কিশোরী৷ অনেক জায়গায় অভিযোগ করা সত্ত্বেও তদন্তের নামে কিছুই শেষ পর্যন্ত হয়নি বলে অভিযোগ৷ পুলিশের পক্ষ থেকেও এই বিষয় নিয়ে কিশোরীকে বাড়ির সঙ্গে মিটমাট করে নিতে বলা হয় বলে অভিযোগ৷

Bootstrap Image Preview