হজ কার্যক্রম উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশঃ জুলাই ১১, ২০১৮

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

অাজ মঙ্গলবার হজ কার্যক্রম উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ আশকোনার হাজি ক্যাম্প থেকে তিনি হজ কার্যক্রম-২০১৮ এর শুভ উদ্বোধন করেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশ স্বাধীন করার পর পরই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হাজিদের কম টাকায় হজে পাঠাতে হিজবুল বাহার নামের একটি জাহাজ ক্রয় করেছিলেন। তা ছাড়া তিনি লোকদের প্লেনেও পাঠানোর ব্যবস্থা করেন। তখন যদিও সৌদি আরব আমাদেরকে স্বাধীন দেশ হিসেবে স্বীকৃতি দেয়নি কিন্তু তারা বঙ্গবন্ধুকে পছন্দ করতেন, ভালোবাসতেন। তারা জাতির পিতার অনুরোধে লোকদের হজে যাওয়ার ব্যাপারে সহযোগিতা করেন।

তিনি ১৯৮৪ সালে ওমরা ও ১৯৮৫ সালে হজ পালন করেছেন সে বিষয়েও কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, শুরু হজে লোক পাঠানোর ব্যাপারে খুব সমস্যা ছিল। তখন আমি কোন ক্ষমতায় না থাকলেও বিভিন্ন ক্যাম্পে গিয়ে হাজিদের খোঁজখবর নিয়েছি। সৌদি বাদশাকে সমস্যাগুলো সমাধানের জন্যে চিঠি দিয়েছি। সেসব চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে সৌদি বাদশা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন হাজিদের জন্যে।

আগামী ১৪ জুলাই শনিবার থেকে বাংলাদেশি হজযাত্রীদের সৌদি আরবে নেওয়া শুরু করবে ‘বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স’। এবার ১৮৭টি ফ্লাইটে ৬৩ হাজার ৬০০ জন হজযাত্রী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স যোগে সৌদি আরবে যেতে পারবেন।

চলিত হজ্জ মৌসুমে ফ্লাই গ্লোবাল নামের একটি প্রতিষ্ঠান থেকে ১৪ জুলাই থেকে ২৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এ চারটি উড়োজাহাজ ভাড়া করেছে বিমান। চারটি নিজস্ব বোয়িং ৭৭৭-৩০০ ইআর মডেলের উড়োজাহাজ দিয়ে হজ ফ্লাইট পরিচালনা করবে বিমান। এসব উড়োজাহাজে আসনসংখ্যা ৪১৯। অন্য পথে ফ্লাইট শিডিউল ঠিক রাখতে চারটি বোয়িং ৭৭৭ উড়োজাহাজ দুই মাসের জন্য ইজারা নিয়েছে বিমান। এর মধ্যে তিনটি উড়োজাহাজ বিমানবহরে যুক্ত হয়েছে, আরেকটি শিগগিরই যোগ হবে।

কমেন্টস