প্রয়োজনে আমি রাজনীতি করবো না, তবুও হকার বসবে: শামীম ওসমান

প্রকাশঃ জানুয়ারি ১৭, ২০১৮

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান বলেন, যদি আমাকে রাজনীতি করতে দেয়া না হয়, প্রয়োজনে আমি রাজনীতি করবো না। তবুও গরিব মানুষের পক্ষে থাকব, হকার বসবে। মঙ্গলবার বিকেলে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন শামীম ওসমান।

তিনি বলেন, আমি বিএনপির অনেক ক্যাডারকে দেখেছি। বিএনপির অনেক মার্ডার মামলার আসামিরা মেয়রের মিছিলে প্রবেশ করে নারায়ণগঞ্জে অশান্তি করার চেষ্টা করেছে। মেয়র বোকামি করতে পারে কিন্তু আমি করবো না।

মঙ্গলবার বিকেল ৫টার দিকে নগরীর সাধুপৌলের গির্জার কাছে মেয়র আইভী ও শামীম ওসমানের সমর্থক হকারদের মধ্যে সংঘর্ষ ও গোলাগুলির ঘটনার পর চাষাঢ়ায় এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে শামীম ওসমান বলেন, হকারদের বিষয়কে কেন্দ্র করে নারায়ণগঞ্জে কেউ কেউ অশান্ত করা চেষ্টা করছে। এটা কোনো রাজনৈতিক বিষয় নয়। যারা হকারদের সরিয়ে দিয়েছে, তাদের ওপর হামলা করেছে এর বিচার আল্লাই করবেন।

তিনি আরো বলেন, হকাররা বসবে কী বসবে না সেটা ঠিক করবে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার এবং প্রশাসন। বিকল্প ব্যবস্থা না হওয়া পর্যন্ত হকার আছে ও থাকবে।

প্রসঙ্গত, গতকাল ফুটপাতে হকার বসানো নিয়ে মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী এবং সংসদ সদস্য এ কে এম শামীম ওসমানের দ্বন্দ্বে দুই পক্ষের সংঘর্ষে রণক্ষেত্রে রূপ নেয় নারায়ণগঞ্জ শহরের চাষাঢ়া। সংঘর্ষের সময় বিকালে প্রতিপক্ষের ঢিলের মুখে পড়লেও আইভীর সমর্থকরা ঢাল বানিয়ে তাকে রক্ষা করে।হামলার জন্য সরাসরি শামীম ওসমানকে দায়ী করেন মেয়র আইভী। অন্যদিকে শামীম ওসমানের দাবি, হকারদের বসাকে কেন্দ্র করে উসকানি দিয়ে গ-গোল বাঁধানো হয়েছে। নারায়ণগঞ্জে আওয়ামী লীগের দুই নেতা শামীম ও আইভীর দ্বন্দ্ব বহু পুরনো। গত ২৫ ডিসেম্বর সিটি করপোরেশন ফুটপাত দখলমুক্ত করতে নামলে হকারদের পক্ষে নামেন শামীম।

হকারদের বসতে না দিলে আইভীকে দেখে নেওয়ার হুমকিও সোমবার দিয়েছিলেন শামীম। উচ্ছেদ হকারদের মঙ্গলবার বিকাল থেকে বসানোর ঘোষণাও দিয়েছিলেন তিনি।

কমেন্টস