তৃতীয় দিনের মতো শহীদ মিনারে আমরণ অনশন করছেন শিক্ষকরা

প্রকাশঃ ডিসেম্বর ২৫, ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক-

আজ ২৫ ডিসেম্বর তৃতীয় দিনের মতো গ্রেডিং পদ্ধতিতে বৈষম্য দূরীকরণে আমরণ অনশন শুরু করছেন বাংলাদেশ প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারি শিক্ষকরা।

২৩ ডিসেম্বর শনিবার থেকে প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকদের মধ্যে গ্রেডিং পদ্ধতিতে ৪ ধাপ পার্থক্যের বৈষম্য বিলুপ্ত করার জন্যে আমরণ অনশন করছেন দেশের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকবৃন্দ।

বাংলাদেশ প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারি শিক্ষক সমিতির সহ-সভাপতি মো. নুরুল ইসলাম বিডিমর্নিংকে বলেন, ১৯৭৩ সালে বঙ্গবন্ধু মেখ মুজিবুর রহমান যখন প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোকে সরকারিকরণ করেন তখন প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকদের মধ্যে কোন গ্রেডিং বৈষম্য ছিল না। প্রধান শিক্ষকরা বেতন পেতেন ৭৫ টাকা আর সহকারী শিক্ষকরা বেতন পেতেন ৬৫ টাকা। এখানে আমাদের দাবি আদায় হওয়া পর্যন্ত শান্তিপূর্ণভাবে আন্দোলন চলবে।

তিনি বলেন, ২০০৬ সালে প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকদের মধ্যে ২ ধাপ পার্থক্য করা হয়। ২০১৪ সালে এটি ৩ ধাপ পার্থক্য করা হয়েছে। আমরা চাই প্রধান শিক্ষকের পরের ধাপেই সহকারী শিক্ষকদের স্তরটি হতে হবে।

বাংলাদেশ প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারি শিক্ষক সমিতির সভাপতি মো. শামসুদ্দিন মাসুদ বিডিমর্নিংকে বলেন, আমরা মর্যাদার জন্যে আন্দোলন করছি। আমাদের দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমরা ঘরে ফিরবো না।

কমেন্টস