নকশী কাঁথার সূত্র ধরে ৩০ বছর পর যুবককে চাকরি দিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

প্রকাশঃ অক্টোবর ১৮, ২০১৭

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

একটি চমৎকার নকশী কাঁথা উপহার পাওয়ার প্রেক্ষিতে তিরিশ বছর পর এক শিক্ষিত বেকার যুবককে চাকরি দিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজে।

রবিবার গণভবনে ঠাকুরগাঁওয়ের জাবরহাটের আমিরুল ইসলামকে তিনি সরাসরি এ নিয়োগপত্র দেন। এ সময় ঠাকুরগাঁও  ও পঞ্চগড়-৩০১ সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য সেলিনা জাহান লিটাসহ আমিরুলের আত্মীয়রা উপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছে, ১৯৮৭ সালে উত্তরাঞ্চলে ভয়াবহ বন্যা পরিদর্শনে ঠাকুরগাঁওয়ের জাবরহাট করনাইট এলাকায় যান আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা। সেখানে আয়োজিত এক অনাড়ম্বর মঞ্চের টেবিলে ঢাকা দেয়া চমৎকার নকশী কাঁথাটি দেখে তিনি মুগ্ধ হন। পরে তিনি ওই নকশী কাঁথার কারিগর কে তা জানতে ও তাকে দেখতে চান। নকশী কাঁথার প্রস্তুতকারী স্থানীয় চেনবানুকে মঞ্চে আনা হলে শেখ হাসিনা তার সাথে কুশল বিনিময় ও কাঁথাটির খুব প্রশংসা করেন। চেনবানু আনন্দ আবেগে তাৎক্ষণিকভাবে নকশী কাঁথাটি তাকে উপহার দিয়ে দেন। শেখ হাসিনা সানন্দে সেটি গ্রহণ করেন।

এরপর প্রায় তিরিশ বছর পর ওই নকশী কাঁথার সূত্র ধরে চেনবানুর নাতি এমএ পাশ বেকার আমিরুল ইসলাম তার চাকরির জন্য সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দফতরে যোগাযোগ করেন। প্রধানমন্ত্রী তাকে এ ব্যাপারে সংসদ সদস্য সেলিনা জাহান লিটার সঙ্গে যোগাযোগ করে তাকে নিয়ে গণভবনে আসতে বলেন। লিটা এ ব্যাপারে দ্রুত সহযোগিতা করে আমিরুল, চেনাবানু ও অন্যদের নিয়ে রবিবার গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর কাছে যান। প্রধানমন্ত্রী ওই দিনই দরখাস্ত অনুযায়ী আমিরুলকে ইউনিয়ন ব্যাংকে জুনিয়র অফিসার পদে নিয়োগপত্র দেন।

কমেন্টস