দেহের এমন সব স্থানে মোবাইল ফোন! সাবধান…

প্রকাশঃ জানুয়ারি ১৯, ২০১৮

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

এখন সবার হাতে হাতে মোবাইল ফোন। আর এ ডিভাইসটির ব্যবহার যত বাড়ছে ততই এর সঙ্গে নানা স্বাস্থ্যগত জটিলতার আশঙ্কা বাড়ছে। অনেকেই দেহের এমন সব স্থানে মোবাইল রাখেন, যা মোটেই স্বাস্থ্যসম্মত নয়।

এ লেখায় তুলে ধরা হলো তেমন ৭ টি সাবধানতার কথা।

১. পেছনের পকেটে
প্যান্টের পেছনের পকেটে অনেকেই মোবাইল রেখে যাতায়াত করেন। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পেছনের পকেটে মোবাইল রাখলে তা পেট ও পায়ের ব্যথার কারণ হতে পারে। এছাড়া পেছনের পকেটে মোবাইল ফোন থাকলে তা হারিয়ে যেতে পারে কিংবা হঠাৎ কোথাও বসে পড়লে দুর্ঘটনাবশত ভেঙেও যেতে পারে।

২. সামনের পকেট

পেছনের পকেটের মতোই প্যান্টের সামনের পকেটে মোবাইল ফোন রাখা মোটেই উচিত নয়। এতে পুরুষের শুক্রাণু উৎপাদন ক্ষমতা কমে যায়। একইভাবে নারীদেরও ক্ষতি করতে পারে।

৩. বুক পকেট বা বুকের কাছাকাছি

বুক পকেটে মোবাইল ফোন রাখা উচিত নয়। এটি হৃৎপিণ্ডে সমস্যা ও স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়াতে পারে।

৪. ত্বকের সংস্পর্শে

মূলত দেহের কোনো অংশেই ত্বকের সংস্পর্শে মোবাইল ফোন রাখা উচিত নয়। তার বদলে একটি আলাদা ব্যাগে করে তা বহন করা উচিত।

৫. চার্জার লাগানো অবস্থায়

মোবাইল ফোন চার্জার লাগানো অবস্থায় ব্যবহার করা উচিত নয়। এতে ফোনের ক্ষতির মাত্রা বেড়ে যায়।

৬. বালিশের নিচে

ঘুমানোর সময় বালিশের নিচে মোবাইল ফোন রাখা একেবারেই উচিত নয়। এতে ঘুমের সমস্যাসহ মস্তিষ্কের নানা ধরনের সমস্যা তৈরি হতে পারে।

৭. অতিরিক্ত ঠাণ্ডা বা গরমে

অতিরিক্ত ঠাণ্ডা আবহাওয়ায় মোবাইল ফোন রাখলে তাতে নানা ধরনের সমস্যা হতে পারে। একইভাবে অতিরিক্ত গরমেও তা নষ্ট হতে পারে, এমনকি বিস্ফোরিত হওয়াও অসম্ভব নয়। এ কারণে মোবাইল ফোন সহনীয় তাপমাত্রায় রাখা উচিত।

কমেন্টস