স্মার্টফোনের ব্যাটারি ফুল রাখার ৫ উপায়

প্রকাশঃ ডিসেম্বর ২০, ২০১৭

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

প্রয়োজনের মুহূর্তে যখন মোবাইল ফোনের চার্জ শেষ হয়ে যায়, তখন খুঁজতে হয় চার্জার। স্মার্টফোন বা ল্যাপটপে চার্জ না থাকায় সমস্যার পরেননি, এমন মানুষ খুঁজে পাওয়াও দায়। কিছু কিছু সময় চার্জ দেওয়ার জায়গাও থাকে না। চার্জ দেওয়ার সুবিধা যখন হাতের নাগালে থাকে না, তখনই বিপদ। এমন বিপদে হয়তো অনেকেই পড়েছেন।

কিন্তু ফোনে বেশি কথা বললে, ইন্টারনেট ঘাঁটলে চার্জ যে ফুরোবেই। এ তো বিজ্ঞানের নিয়ম, আপনি পাল্টাতে পারবেন না। তবে আপনি যা পারেন তা হল, কয়েকটি সহজ উপায় অবলম্বন করতে। যাতে আপনার ট্যাবলেট-স্মার্টফোন বা ল্যাপটপের ব্যাটারির আয়ু বাড়ে।

চলুন জেনে নেওয়া যাক স্মার্টফোনের ব্যাটারি ফুল রাখার পাঁচ পদ্ধতি-

ফুল চার্জ দিন: বারবার করে অল্প চার্জ দেবেন না। একবারে ফুল চার্জ দিন, তারপরেই প্লাগ থেকে ফোনকে ডিসচার্জ করুন। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ফোনের চার্জ না ফুরালে চার্জে বসাবেন না। ৪০-৮০ শতাংশ চার্জ ফোনে থাকা আদর্শ।

তীব্র গরম এড়িয়ে চলুন: ফোনের ব্যাটারির আয়ু অনেকাংশ নির্ভর করে চারপাশের তাপমাত্রার উপর। আপনি যদি ৩৫ ডিগ্রির উপর বা শূন্য ডিগ্রির নিচের তাপমাত্রায় থাকেন, তাহলে ফোনের ব্যাটারির চার্জ দ্রুত কমবে। তাই টেবিল বা গাড়িতে, সরাসরি রোদ পরছে এমন কোনও জায়গায় ফোন রাখবেন না।

আলট্রা ফাস্ট চার্জার এড়িয়ে চলুন: বাজারে সস্তার কিছু চার্জার পাওয়া যায় যাদের বলা হয় আলট্রা ফাস্ট চার্জার। সাধারণ চার্জারের থেকে অনেক দ্রুত ফোন চার্জ করতে ব্যবহার করা হয় এটি। এতে কিন্তু ব্যাটারির আয়ু নষ্ট হয়।

নকল চার্জারকে না বলুন: ব্র্যান্ডেড ফোনে সেই ব্র্যান্ডেরই চার্জার ব্যবহার করাটা জরুরি। নইলে ফোনের ব্যাটারি দ্রুত নষ্ট হয়ে যাবে।

চার্জ হয়ে গেলে চার্জার খুলে রাখুন: অনেক সময়ই দেখা যায়, ফোন বা ল্যাপটপ ফুল চার্জড হওয়ার পরও আমরা চার্জার খুলতে ভুলে যাই। এতে ফোন-ল্যাপটপ একদিকে গরম হয়ে যায়, অন্যদিকে লিথিয়ম ব্যাটারির জীবনীশক্তিও ফুরিয়ে আসে।

কমেন্টস