ঢাকার রাস্তার যানজটের তথ্য আগেই জানিয়ে দেবে গুগল

প্রকাশঃ নভেম্বর ১১, ২০১৭

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

ঢাকার রাস্তার যানজটের ধরণ কেমন তা অগ্রিম জানিয়ে দেবে গুগল ম্যাপের ট্রাফিক ফিচার। ফলে আপনি বিকল্প পথে সহজে গন্তব্যে পৌঁছে যেতে পারবেন।

গত বৃহস্পতিবার বাংলাদেশে এ সেবাটি চালু হয়েছে। এর আগে ২০০৫ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি গুগল ম্যাপ চালু করা হয় এবং ২০০৭ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি প্রথম রিয়েল টাইম ট্রাফিক আপডেট সেবাটি চালু করে গুগল। এরপর সেবাটি বিভিন্ন দেশে চালু করেছে গুগল। প্রতিবেশি দেশ ভারতের কলকাতাসহ ১২টি শহরে এ সেবা চালু হয় ২০১৫ সালের ৩০ জুন। এর আগে ২০১২ সালের ৫ সেপ্টেম্বর দেশটির আরও ২২টি শহরে এ সেবা চালু করে গুগল।

এ সেবাটি পাওয়ার জন্য প্লে স্টোর থেকে আপডেট গুগল ম্যাপ নামিয়ে নিতে হবে। ম্যাপের মেন্যু থেকে ‘রিয়্যাল টাইম ট্রাফিক’-এ ক্লিক করলে তিনটি সমান্তরাল লাইন দেখা যাবে, যেখানে ড্রপ-ডাউন মেনু রয়েছে। ‘ট্রাফিক’ অপশনে গিয়ে ‘লাইভ ট্রাফিক’ থেকে ‘টিপিক্যাল ট্রাফিক’ করে নিন।

ট্রাফিক অপশনটি চালু হলে রাস্তার ওপরে সবুজ, হলুদ, কমলা ও লাল রং দেখতে পাওয়া যাবে। অপশনটি চালু থাকা অবস্থায় গাড়ি চলাচলের আপডেট নিয়ে ডিভাইসে কিছুক্ষণ পরপর নোটিফিকেশন আসবে। তবে ঢাকার সব গলির রাস্তার ট্রাফিক আপডেট এখনও চালু হয়নি।

গুগল ম্যাপের ট্রাফিক ফিচারের মাধ্যমে পাওয়া যাবে রাস্তা সম্পর্কে পূর্ণ আপডেট। শহরে রাস্তাগুলোর কোথায় জ্যাম লেগে আছে এবং কোথাকার রাস্তা ফাঁকা আছে তার সবই বিস্তারিত জানা যাবে। এমন কি আপনি যে রাস্তা দিয়ে এখন কাজের উদ্দেশ্যে যেতে চাচ্ছেন সে রাস্তার পরিস্থিতি কেমন এবং আপনার গন্তব্যে পৌঁছাতে কত সময় লাগবে সেটিও জানা যাবে গুগল ম্যাপের এ সার্ভিস দিয়ে।

ট্রাফিক ফিচারে রাস্তায় ট্রাফিক জ্যামের ওপর নির্ভর করে ম্যাপে থাকা সড়কের রং পরিবর্তন হবে। যে রাস্তায় সবুজ রং দেখা যাবে সেখানে জ্যাম নেই। কমলা রং হলে বুঝতে হবে সেখানে হালকা জ্যাম রয়েছে। লাল রং হওয়ার অর্থ জ্যাম লেগে রয়েছে আর গাঢ় লাল রং মানে সেখানে তীব্র যানজট লেগেছে।

গুগল এ সেবাটি মূলত ব্যবহারকারীদের ফোন ও গাড়িতে থাকা জিপিএস ব্যবহার করে এই ট্রাফিক আপডেট তৈরি করে। একটি নির্দিষ্ট রাস্তায় একটি জিপিএস কতক্ষণ অবস্থান করছে এবং এর চলার গতি কেমন, তা থেকেই ওই রাস্তার ট্রাফিক সম্পর্কে ধারণা নেওয়া হয়।

গুগল ম্যাপের অসংখ্য সেবা মানুষের দৈনন্দিন জীবনযাত্রা সহজ করে দিয়েছে। গুগল ম্যাপের মাধ্যমে শুধুমাত্র পথ দেখা যায় না; এর সাহায্যে এটিএম, হোটেল, ক্যাফে বা প্রয়োজনীয় স্থান খুঁজে পাওয়া যায়, পছন্দের জায়গা ‘পিন’ করে রাখা যায়, ইন্টারনেট কানেকশন থাকাকালীন প্রয়োজনীয় ম্যাপটি ‘ডাউনলোড’ করে ‘সেভ’ করে অফলাইন থেকেও ম্যাপ দেখা যায়, ট্রাফিক কখন কোথায় কেমন তা দেখা যায়।

এ ব্যাপারে গুগল লোকাল গাইড বাংলাদেশের মডারেটর মাহাবুব হাসান বলেন, চালু হওয়া এই ফিচারটি ব্যবহার করে এখন শুধুমাত্র গুরুত্বপূর্ণ ও বড় সড়কগুলোর আপডেট পাওয়া যাচ্ছে। পরবর্তীতে অন্যান্য রাস্তার আপডেটও এখানে যুক্ত করা হবে। ফিচারটি এখন পরীক্ষামূলক পর্যায়ে আছে। এই ফিচারটির মাধ্যমে ব্যবহারকারীকে আরও উন্নত অভিজ্ঞতা প্রদানে কাজ করে যাচ্ছে গুগল।

কমেন্টস