কানে হেডফোনে বিস্ফোরণ!

প্রকাশঃ মার্চ ১৫, ২০১৭

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

উড়ন্ত বিমানে বসে হেডফোনে গান শুনছিলেন অস্ট্রেলীয় এক তরুণী।ঘুমিয়েও পড়েছিলেন। হঠাৎ করেই বিকট শব্দে বিস্ফোরণ! মুহূর্তেই ঐ তরুণীর মুখমণ্ডলের একাংশ এবং হাত পুড়ে যায়। তিনি বুঝতে পারেন তার হেডফোনটি বিস্ফোরিত হয়েই ঘটেছে এই ঘটনা।

বুধবার ঐ বিমানের কর্মকর্তারা বলেছেন, ব্যাটারিচালিত যন্ত্র বিমানে ব্যবহার সম্পর্কে সতর্ক করেছিলেন তারা।

কানে হেডফোনে বিস্ফোরণ!

ঘটনাটি সম্প্রতি চীনের বেইজিং থেকে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে যাওয়ার সময় ঘটেছে। অস্ট্রেলিয়ান ট্রান্সপোর্ট সেফটি ব্যুরো (এটিএসবি) অবশ্য ওই নারীর নাম প্রকাশ করেনি। অস্ট্রেলিয়ার পরিবহন নিরাপত্তা সংস্থাটির কাছে ওই নারী বলেছেন, যখন বিস্ফোরণ ঘটে, তখন গান শুনছিলেন তিনি।

ওই নারীর ভাষ্য, ঘাড় বেয়ে মুখের সঙ্গে হেডফোন প্যাঁচানো ছিল তাঁর। বিস্ফোরণের সময় মুখ চেপে ধরেন তিনি। যখন পুড়ে যাওয়ার অনুভূতি বাড়তেই থাকে, তখন ওই হেডফোন চেপে ধরে মেঝেতে আছড়ে ফেলেন। এ সময় এতে স্ফুলিঙ্গ ও অল্প আগুন ছিল। ফ্লাইট ক্রুরা দ্রুত আগুন নিভিয়ে ফেলেন ওই হেডফোনের ওপর এক বালতি পানি ঢেলে দেন। ওই সময় ফোনের ব্যাটারি ও প্লাস্টিক কাভার গলে যায়।

এটিএসবির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওই ফ্লাইটের যাত্রীরা গলে যাওয়া প্লাস্টিক, পোড়া ইলেকট্রনিকস ও চুল পোড়ার গন্ধ পান।

ঐ তরুণী ছবি প্রকাশ করা হলেও নাম গোপন রাখা হয়েছে। বিস্ফোরণে তার মুখমণ্ডলে কালো দাগ পড়ে যায়। তার ঘাড় এবং হাতেও ফোসকা পড়ে।অবশ্য ধারণা করা হচ্ছে, ফোনের লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি থেকে এ দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

এটিএসবি জানায়, বিস্ফোরিত হেডফোনটিতে লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারি ছিল।

Advertisement

কমেন্টস