ভোগান্তির কারণ যখন ভারতের বোলিং

প্রকাশঃ মার্চ ১৪, ২০১৮

বিডিমর্নিং স্পোর্টস ডেস্ক-

নিদাহাস কাপ টি-২০তে ভারতের বোলিং ডিপার্টমেন্ট ঘোরাচ্ছে ছড়ি। ডান হাতি-বাঁ হাতি পেস কম্বিনেশনে শার্দুল ঠাকুর, জয়দেব উনাদকাত, অফ স্পিনার ওয়াশিংটন সুন্দর,লেগ স্পিনার চাহাল-এমন বোলিং কম্বিনেশন প্রতিপক্ষদের জন্য মাথা-ব্যাথার কারন। ওয়াশিংটন সুন্দরকে তো খেলতেই পারছে না কেউ। ৩ ম্যাচে এই চার বোলারের উইকেটের সমস্টি ১৮ উইকেট। টূর্নামেন্টের শীর্ষ ৫ বোলারের চারজনই তারা।

ভুবনেশ্বর কুমার, যশপ্রীত বুমরারা না থাকলেও নবাগত ওয়াশিংটন সুন্দর বা শার্দূল ঠাকুর কিন্তু বিপক্ষকে চাপে রাখার কাজটা করে যাচ্ছেন। সোমবারই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে শার্দূল চার উইকেট নিয়ে দলের জয়ের ভিত তৈরি করেন। আগের ম্যাচে বাংলাদেশের বিপক্ষে জয়দেব উনাদকাট তিন উইকেট নেন। ভারতীয় পেসারদের রিজার্ভ বেঞ্চও যে শক্তিশালী, তা প্রমাণ করতে মরিয়া তাঁরা।

ভারতের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে এই বোলিং আক্রমনে ভুগেছে বাংলাদেশ দল। ব্যাটিং উইকেটে ৫৫টি বল ডট করেছে বাংলাদেশ। ফিরতি দেখায়ও ভারতের বোলিং অ্যাটাক তাই ভাবাচ্ছে বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহামুদুল্লাহকে। নিদাহাস ট্রফিতে বাংলাদেশের স্পিানাররা কিছুটা ভালো বোলিং করলেও পেস ডিপার্টমেন্ট প্রথম থেকেই ভোগাচ্ছে টাইগারদের।

ভারতের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে রুবলে ভালো বোলিং করেছিলেন কিন্তু শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৪ ওভারে ৪৫ রান দিয়ে নিজেকে খরুচে প্রমাণ করেছেন। এ ম্যাচে মুস্তাফিজ ৩ উইকেট পেলেও ৪ ওভারে ৪৮ রান দিয়েছেন। এছাড়া তাসকিন তার তিন ওভারে দিয়েছিলেন ৪০ রান। তাই আজ একাদশে তাসকিনের বদলি হিসেবে আবু হায়দার রনিকে দেখা যেতে পারে।

আজ (বুধবার) আসরে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে কাল ভারতের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। প্রথম ম্যাচে ভারতের কাছে হারের পর, দ্বিতীয় ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে জয়ের ধারায় ফিরেছে বাংলাদেশ। এ জয়ের ধারাবাহিকতা নিজেদের তৃতীয় ম্যাচেও ধরে রাখতে চায় টাইগাররা।

কমেন্টস