আইপিএলে কত জন প্লেয়ার ধরে রাখছে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো?

প্রকাশঃ ডিসেম্বর ৭, ২০১৭

বিডিমর্নিং স্পোর্টস ডেস্ক- 

২০১৮ সালে বসছে আইপিএলের ১০ম আসর। আসন্ন আইপিএলে গতবারের কত জন ক্রিকেটারকে ধরে রাখা যাবে, বুধবার তা নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে বৈঠকে বসেছিল আইপিএলের গভর্নিং কাউন্সিল। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন আইপিএল কমিটির চেয়ারম্যান রাজীব শুক্ল এবং সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত কমিটি অব অ্যাডমিনিস্ট্রেটর (সিওএ)।

বৈঠক শেষে গভার্নিং কাউন্সিল জানিয়ে দিল, ৫ জন করে ক্রিকেটারকে ধরে রাখতে পারবে দলগুলি। তার মধ্যে সর্বাধিক ৩ জন ভারতীয় দলে খেলা ক্রিকেটার, সর্বাধিক ২ জন জাতীয় দলে না খেলা ভারতীয় ক্রিকেটার এবং সর্বাধিক ২ জন বিদেশি ক্রিকেটার থাকা সম্ভব।

আইপিএলে ফিরে আসা চেন্নাই সুপার কিঙ্গস এবং রাজস্থান রয়্যালসের ক্ষেত্রেও একই নিয়ম খাটবে। ২০১৫ সালে যে দল ছিল চেন্নাই এবং রাজস্থানের, সেই দল থেকে যাঁরা পুনে বা গুজরাতের হয়ে গিয়েছিলেন তাঁদের মধ্যে থেকে ৫ জন করে ধরে রাখতে পারবে চেন্নাই, রাজস্থান।

প্রতিটি ফ্র্যাঞ্চাইজি দল গঠনের জন্য ৮০ কোটি রুপির বেশি খরচ করতে পারবে না। ২০১৯ ও ২০২০ সালে এই বাজেট বেড়ে হবে যথাক্রমে ৮২ কোটি ও ৮৫ কোটি টাকা। নিলামের আগে কোনও ফ্র্যাঞ্চাইজি যদি তিনজন ক্রিকেটারকে ধরে রাখে, তাহলে ৮০ কোটি টাকা থেকে ৩৩ কোটি টাকা বাদ দেওয়া হবে। নিলামের আগে প্রথম যে ক্রিকেটারকে ধরে রাখা হবে, তিনি ১৫ কোটি টাকা পাবেন। দ্বিতীয় ও তৃতীয় ক্রিকেটার যথাক্রমে ১১ কোটি ও ৭ কোটি টাকা পাবেন।

আইপিএলের দশম আসরে ফিরে আসছে চেন্নাই সুপার কিংস এবং রাজস্থান রয়্যালস।চেন্নাই সুপার কিংসের হয়েই আবার ফিরতে চলেছেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি।  দল দুটির ক্ষেত্রেও একই নিয়ম প্রযোজ্য। গেলো দুই আসরে না থাকলেও ২০১৫ সালের নিজ নিজ দল থেকে ৫ জন করে খেলোয়াড় ধরে রাখতে পারবে চেন্নাই-রাজস্থান।

আইপিএলের প্রত্যেক দল সর্বোচ্চ ২৫ জন ক্রিকেটারকে রাখতে পারবে। কমপক্ষে রাখতেই হবে ১৮ জনকে। বিদেশি রাখা যাবে সর্বোচ্চ আট জন।

কমেন্টস