‘দলকে আমিই বিপদে ফেলে দিয়েছিলাম’

প্রকাশঃ নভেম্বর ১৪, ২০১৭

মেজবা মিলন।।

ঠিক জাতীয় দলের জার্সি কবে গায়ে কবে জড়িয়েছেন সেটা হয়তো ভুলেই গিয়েছেন জহুরুল ইসলাম অমি।হয়তো এখন আর স্বপ্নও দেখেন না জাতীয় দলের খেলার।কিন্তু নিয়মিত ঘরোয়া ক্রিকেট খেলে যাচ্ছেন এই উইকেটরক্ষক ও ব্যাটসম্যান।চলতি বিপিএলে খুলনা টাইটানসের বিপক্ষে ঢাকা ডাইনামাইটসের হয়ে একাই ম্যাচ জিতিয়ে দিলেন।ব্যাট হাতে ৩৯ বলে ৫ চার মেরে করেছেন ৪৫ রান।

দুর্দান্ত এই জয়ের পর ম্যাচ শেষে এসেছিলেন সংবাদ সম্মেলনে এসে বললেন অনেক কথা।শেষ ওভারের দুই বলে দরকার ছিলো চার রান।কিন্তু সেই চার রান করতে সক্ষম হয়েছেন জহুরুল।

তবে তিনি যে শর্ট খেলে চার মেরেছেন সেই শর্ট গুটা ম্যাচে একটাও খেলেনি কিন্তু কেন এই বিপদ জনক শর্ট খেললেন এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘না আসলে প্রথম দুটা বল আমি চার মারতে গিয়েছিলাম।কিন্তু নরমালি একটু কুইক একটু পারফেক্ট ছিলো ওটা আমার ভুল চিন্তা ছিলো চাড় মারার যদি এক রানের চিন্তা করতাম তাহলে ব্যাটে লাগতো।আসলে ম্যাচতা আমিই বিপদে ফেলে দিয়েছিলাম পরে আমি চিন্তা করলাম ও দুটা ইয়োকার মেরে সাক্সাসেস হয়েছে এই বলটাও ইয়োকার মারবে।তো আমি একটা জ্ঞানহীনের মত চিন্তা করলাম যে থার্ডম্যান উপরে আমারতো এই দিকে মেরে লাভ নাই আমাকে থার্ডম্যানের উপর দিয়ে মারতে হবে।আমি এটা এর আগে কোন দিন খেলিনি’

দলে লোকাল খেলোয়াড়দের পারফম্যান্স নিয়ে তার কি মত জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন,জি আল্লহামদুলিল্লা খুবই ভালো লাগছে।আসলে আমাদের দলে লোকাল খেলোয়াড়দের সুযোগ পাওয়া খুবই কষ্ট কর।বিগত কয়েক ম্যাচে তো আমরা খেলার তেমন একটা সুযোগিই পায়নি।আজকে ১৫৬ রান আমাদের জন্য খুব একটা বড় লক্ষ্য ছিলো না।আমাদের ব্যাটসম্যানেরা শুরুতেই মেরে খেলতে গিয়ে উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে গিয়েছিলাম।এইরকম ম্যাচে আমরা লোকাল খেলোয়াড়রা শেষে পর্যন্ত খেলতে পেরে ভালো লাগছে।

তিনি আরো বলেন,আসলে লোকাল ফরেন বলে কোন কথা এটা একটা টিম।দলের প্রয়োজনে যাকে যে খানে নামাতে পারে।এখন যেহেতু টিম হয়ে গিয়েছি তাই আলাদা করা যাবে না লোকাল আর ফরেন। এমনো হতে পারে আমাকে ওপেনিংয়েও নামাতে পারে এটা দলের প্ল্যানিং। ওদের (ফরেন) প্রয়োজনে নামানো হচ্ছে।গতম্যাচে রানরেটের কারনে তাদের আগে নামানো হয়।তার মানে এটা তো আমরা অস্বীকার করতে পারবো না যারা বিদেশী খেলোয়াড় এসেছে তাদের রেকর্ড আমাদের থেকে ভালো।তারা আমাদের থেকে বেশি ম্যাচ খেলেছে এইজন্যই তারা উপরে নামে।

 

কমেন্টস