ঢাকায় প্রস্তুতি ম্যাচের পরেই নির্ধারণ হবে নাসির-শফিউলের ভাগ্য

প্রকাশঃ আগস্ট ১২, ২০১৭

বিডিমর্নিং স্পোর্টস ডেস্ক-

চট্টগ্রামে সাতদিনের ট্রেনিং ক্যাম্প শেষে শুক্রবার রাতেই ঢাকা ফিরেছে টাইগাররা। ঢাকায় ফিলে একদিনের বিশ্রাম শেষে রবিবার থেকে ফের শুরু করবে অনুশীলন। এরপর নিজেদের মধ্যে ভাগ হয়ে আরো একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে মুশফিক-রিয়াদ-তামিমরা।

চট্টগ্রামের প্রস্তুতি ম্যাচে নজর কাড়া পারফরম্যান্স করে নির্বাচকদের নজন কেড়েছেন নাসির হোসেন, শফিউল ইসলাম ও মমিনুল হক। মমিনুল টেষ্ট দলে নিয়মিত সদশ্য হলেও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্টে দল থেকে বাদ পড়েছিলেন। এছাড়া দীর্ঘ দিন ধরে দেশের ঘড়োয়া লিগে নিয়মিত ব্যাটে রান পেলেও নাসির দলে জায়গা পাচ্ছিলেন না।এবার টেস্ট দলে তার জায়গা পাওয়ার সম্বাবনা বেশ উজ্জল।আর শফিউল ইসলাম ইনজুরি থেকে ফিরেই প্রস্তুতি ম্যাচে সাত ওভারে ১৭ রান দিয়ে ৫ উইকেট নিয়ে টেস্ট দলে তার স্থান এক রকম নিশ্চিতই করে ফেলেছেন। তবে চট্টগ্রামে ব্যাটে ও বোলিংয়ে জ্বলেওঠা এই দুই ক্রিকেটারকে আবার নিজেদের সামর্থের প্রমান দিতে হতে ঢাকায়।

অস্ট্রেলিয়া সিরিজের জন্য এখনও চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেনি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। ঢাকায় অনুষ্ঠিত প্র্যাকটিস সেশন এবং আগামী ১৬ ও ১৭ তারিখে অনুষ্ঠিতব্য শেষ প্রস্তুতি ম্যাচের পরেই চূড়ান্ত করা হবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু। তবে ধারণা করা হচ্ছে আগামী ১৯ আগষ্ট দল ঘোষণা করা হবে।

নান্নু বলেন, ‘ঢাকায় তিনদিনের একটি প্র্যাকটিস সেশন আছে। এরপর ১৬ ও ১৭ তারিখে দুই দিনের আরেকটি প্রস্তুতি ম্যাচ আছে। সেটার পরেই আমরা সিদ্ধান্ত নিবো দল ঘোষণার।’

এর আগে, ট্রেনিং ক্যাম্পের অংশ হিসেবে গত বুধবার তিন দিনের একটি প্রস্তুতি ম্যাচে অংশ নিয়েছিল টাইগাররা। মূলত জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা দুই ভাগ হয়ে মুশফিক একাদশ এবং তামিম একাদশ নামে দুইটি দল গঠন করে এই ম্যাচটি খেলেছিলেন। কিন্তু প্রস্তুতি ম্যাচের প্রথম দিন থেকেই উৎপাত চালিয়ে গিয়েছে বৃষ্টি যা অব্যাহত ছিল শেষ দিন পর্যন্ত।

ফলে ট্রেনিং সেশন পুরোপুরি শেষ হওয়ার আগেই ফিরতে হল টাইগারদের। তবে এরপরেও মুশফিকদের অনুশীলনে বেশ সন্তুষ্টই দেখা গেল বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু।

উল্লেখ্য, অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথমটি অনুষ্ঠিত হবে ২৭ আগস্ট ঢাকার মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। এরপর ৪ সেপ্টেম্বর বন্দরনগরী চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে দ্বিতীয় ম্যাচ।

 

Advertisement

কমেন্টস