“সেরা বাঙালির” পুরস্কার নিতে কলকাতা যাচ্ছেন মাশরাফি

প্রকাশঃ জুলাই ২৮, ২০১৭

বিডিমর্নিং স্পোর্টস ডেস্ক-

বাংলাদেশের সর্বকালের সেরা অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। তার হাত ধরেই এসেছে অনেক পুরস্কার।শূধূ বাংলাদেশেই নয় দেশের বাইরেও তার জনপ্রিয়তা আছে। আবার তার হাত দিয়ে আসছে নতুন এক পুরস্কার। বিভিন্ন ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখা বাঙালি কীর্তিমানদের পুরস্কৃত করে থাকে কলকাতাভিত্তিক এবিপি মিডিয়া গ্রুপ। চলতি বছর সংস্থাটির সেরা বাঙালি খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন মাশরাফী। শনিবার জমকালো অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে টাইগারদের ওয়ানডে অধিনায়কের হাতে পুরস্কার তুলে দেয়া হবে। এজন্য শুক্রবার বিকেলে কলকাতার উদ্দেশ্যে রওনা হবেন তিনি।

২০১৪ সালের পর থেকে মাশরাফির হাত ধরে পাল্টে গেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট। বিশ্বকাপে কোয়াটার ফাইনাল সহ, চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে সেমি-ফাইনাল সব তার হাত ধরেই এসেছে। তাছাড়া পাকিস্তান, ভারত এবং দক্ষিণ অাফ্রিকার মত দেশকে সিরিজ হারিয়ে বাংলাদেশ তারই হাত ধরে।

সপরিবারেই কলকাতা যাচ্ছেন মাশরাফি। ঢাকায় ফিরবেন ৩ আগস্ট। এই সময়ের মধ্যে মেয়ে হুমায়রা মোর্ত্তজার চোখের চিকিৎসাও করাবেন বলে জানিয়েছেন মাশরাফী নিজেই।

এর আগে ২০০৭ সালে বাংলাদেশি ক্রিকেটার হাবিবুল বাশার সুমন ও ভারতীয় ক্রিকেটার সৌরভ গাঙ্গুলি হাতে তুলেছিলেন এই খেতাব। ২০১২ সালে খেতাবটি পেয়েছিলেন আরেক টাইগার ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান। সেবার ভারতীয় ক্রিকেটার মনোজ তিওয়ারিও পুরস্কার হাতে তোলেন। অন্যদের মধ্যে নোবেলবিজয়ী ড. মুহম্মদ ইউনুসও পুরষ্কারটি হাতে তুলেছিলেন। পাঁচ বছর পর আবারও কোনও বাংলাদেশি ক্রিকেটার কলকাতার মর্যাদাপূর্ণ খেতাব হাতে তোলার অপেক্ষায়।

এবিপি মিডিয়া বিশ্বাস করে, বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে বলিষ্ঠ নেতৃত্ব প্রদানের মাধ্যমে বিশ্বমঞ্চে বাঙালিদের সুনাম বৃদ্ধি করেছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা।

মাশরাফির নেতৃত্বে বাংলাদেশ প্রথমবারের মতো ওয়ানডেতে টানা ৬টি হোম সিরিজ জেতে। তার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে ২০১৫ বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠা ছাড়া চলতি বছর চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে সেমিফাইনালে পৌঁছায় লাল-সবুজরা। ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক হয়ে ফিরে দলকে বদলে দিয়েছেন ম্যাশ। বিশ্বক্রিকেটে অন্যতম শক্তিশালী এক দলের নাম এখন বাংলাদেশ।

‘সেরা বাঙালি-২০১৭’ অনুষ্ঠানটি এবিপি আনন্দ চ্যানেলের সরাসরি সম্প্রচার করার কথা রয়েছে।

Advertisement

কমেন্টস