উমর আকমলকে আর বেতন দিবে না পিসিবি

প্রকাশঃ জুলাই ১২, ২০১৭

বিডিমর্নিং স্পোর্টস ডেস্ক-

সাম্প্রতিক সময়ে ফিটনসে ও শৃঙ্খলাভঙ্গের ইস্যুতে বেশ সমালোচিত হয়েছিলেন পাকিস্তানি ক্রিকেটার উমর আকমল।তারই প্রেক্ষিতে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) কেন্দ্রীয় চুক্তির তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন এই উইকেটরক্ষক ও ব্যাটসম্যান। পিসিবি আজ ২০১৭-১৮ মৌসুমের জন্য চারটি ক্যাটাগরীতে চুক্তিভুক্ত ৩৫ জন খেলোয়াড়ের তালিকা প্রকাশ করেছে।

এর আগে ফিটনেস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ না হওয়ায় লন্ডনে চ্যাম্পিয়নস ট্রফি শুরু হবার মাত্র এক সপ্তাহ আগে তাকে দল থেকে বাদ দেওয়া হয়। তার পরিবর্তে দলভুক্ত করা হয় বাঁ-হাতি মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান হারিস সোহেলকে। ঐ সময়ই আভাষ পাওয়া গিয়েছিল এবার হয়তো আকমল চুক্তি থেকে বাদ পড়তে যাচ্ছেন। ২০১৬ সালের অক্টোবরে সর্বশেষ পিসিবি’র কেন্দ্রীয় চুক্তিতে আকমল সি’ থেকে ডি’ ক্যাটাগরীতে নেমে গিয়েছিলেন।

এবারের চুক্তিতে অবশ্য কয়েকজন খেলোয়াড়কে পারফরমেন্সের ভিত্তিতে উন্নীত করা হয়েছে। এদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলেন ফাস্ট বোলার মোহাম্মদ আমির (ক্যাটাগরি বি থেকে এ), ইমাদ ওয়াসিম (ক্যাটাগরি সি থেকে বি) ও বাবর আজম (ক্যাটাগরি সি থেকে বি)। তবে চুক্তিতে নেমে গেছেন ওয়াহাব রিয়াজ (ক্যাটাগরি বি থেকে সি) ও রাহাত আলী (কাটাগরি বি থেকে সি)।

চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে ভারতের বিপক্ষে একমাত্র ম্যাচ খেলা উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান আহমেদ শেহজাদ ডি ক্যাটাগরি থেকে সি’তে উন্নীত হয়েছেন। শেহজাদও উমরের মত আগের তালিকায় সবচেয়ে নীচু ক্যাটাগরিতে নেমে গিয়েছিলেন।

এর আগে ক্যাটাগরি ডি’তে থাকা আকমলের সাথে এবারের চুক্তি থেকে আরো বাদ পড়েছেন জুলফিকার বাবর ও আনোয়ার আলী। পিএসএল’এ দূর্নীতির অভিযোগে নিষিদ্ধ শারজিল খান, খালিদ লতিফ ও মোহাম্মদ ইরফানের বাদ পড়াটা প্রত্যাশিতই ছিল। চলতি বছর পাকিস্তানের অস্ট্রেলিয়া সফরে বাজিকরদের সাথে সংশ্লিষ্ঠতার অভিযোগে দুই মাসের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছিলেন অল রাউন্ডার মোহাম্মদ নওয়াজ। মে মাসে তার নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হওয়ায় তাকে ডি’ ক্যাটাগরিতে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে।

চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে অপেক্ষাকৃত তরুন দল নিয়ে শিরোপা জয়ের পরে শাদাব খান, উসমান শিনওয়ারি, ফাহিম আশরাফ, ইমামুল হকদের মত তরুনদেরও এবারের চুক্তিতে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে। এ সম্পর্কে পিসিবি’র এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‘সব ধরনের ফর্মেটে জাতীয় দল একটি পুনর্গঠন প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে অতিবাহিত হচ্ছে। এ কারনে কেন্দ্রীয় চুক্তির তালিকায় বেশ কয়েকজন তরুন খেলোয়াড়কে বিবেচনা করা হয়েছে।’

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়- সব ক্যাটাগরিতেই খেলোয়াড়দের মাসিক আয় ১০ শতাংশ বৃদ্ধি করা হয়েছে।

২০১৭-১৮ মৌসুমের পূর্নাঙ্গ কেন্দ্রীয় চুক্তির তালিকা :

ক্যাটাগরি এ : আজহার আলী, শোয়েব মালিক, সরফরাজ আহমেদ, ইয়াসির শাহ, মোহাম্মদ হাফিজ, মোহাম্মদ আমির।

ক্যাটাগরি বি : ইমাদ ওয়াসিম, বাবর আজম, আসাদ শফিক, হাসান আলী।

ক্যাটাগরি সি : ওয়াহাব রিয়াজ, রাহাত আলী, হারিস সোহেল, সামি আসলাম, শান মাসুদ, সোহেল খান, ফখর জামান, জুনায়েদ খান, আহমেদ শেহজাদ, মোহম্মদ আব্বাস, শাদাব খান।

ক্যাটাগরি ডি : মোহাম্মদ নওয়াজ, আসিফ জাকির, উসমান সালাউদ্দিন, আমির ইয়ামিন, উসমান শিনওয়ারি, ফাহিম আশরাফ, রুম্মান রইস, ইমামুল হক, বিলাল আসিফ, মির হামজা, উমের আমিন, মোহাম্মদ হাসান, মোহাম্মদ আসগার, মোহাম্মদ রিজওয়ান।

Advertisement

কমেন্টস