উইম্বলডনের শূরু আজ, শিরোপায় চোখ নাদাল, জোকোভিচ ও মারের

প্রকাশঃ জুলাই ৩, ২০১৭

বিডিমর্নিং স্পোর্টস ডেস্ক-

বছরের তৃতীয় গ্র্যান্ডস্লাম টুর্নামেন্ট উইম্বলডন শুরু হচ্ছে আজ থেকে। চলতি বছরে অন্য দুই গ্র্যান্ডস্ল্যাম অস্ট্রেলিয়ান ওপেন ও ফ্রেঞ্চ ওপেন শেষ হয়ে গেছে। ফ্রেঞ্চ ওপেনে নাদাল রেকর্ড গড়ে চ্যাম্পিয়ন হয় আর অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের ফাইনালে নাদালকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় রজার ফেদেরার।

অল ইংল্যান্ড টেনিস ক্লাবের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ব্রিটিশ তারকা অ্যান্ডি মারে। গতবার তিনি কানাডিয়ান তারকা মিলস রাউনিচকে হারিয়েছিলেন ফাইনালে। কিন্তু অ্যান্ডি মারের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স ব্রিটিশ টেনিস ভক্তদের হতাশই করে তুলেছে। অস্ট্রেলিয়া ওপেনে শীর্ষ বাছাই হিসেবে খেলতে নেমে তিনি চতুর্থ রাউন্ড থেকেই বিদায় নিয়েছিলেন। ফ্রেঞ্চ ওপেনে অবশ্য সেমিফাইনাল খেলেছেন। উইম্বলডনে কী করতে যাচ্ছেন অ্যান্ডি মারে! এটা অবশ্য সময়ই বলবে

অল ইংল্যান্ড টেনিস ক্লাবে ফেবারিটের তালিকায় সবার উপরে আছেন সদ্য ফ্রেঞ্চ ওপেনজয়ী স্প্যানিয়ার্ড রাফায়েল নাদাল এবং সুইস কিংবদন্তি রজার ফেদেরার। দুজনই এবার জয় করতে চান উইম্বলডন। ফেদেরার জিতলে এটা তার রেকর্ড অষ্টম হবে উইম্বলডনে। আর নাদালের হবে তৃতীয়। দীর্ঘ বিরতির পর টেনিস কোর্টে ফিরেছেন রজার ফেদেরার। তবে ৩৬ বছর বয়সী সুইস তারকা যেন সেই পুরনো ছন্দেই আছেন। স্টুটগার্টে হেরে গেলেও তিনি জয় করেছেন হল ওপেন।

পুরুষ এককেক লড়াইটা অবশ্য বেশ হাড্ডাহাড্ডিই হওয়ার সম্ভাবনা। উইম্বলডনে গত ছয়বারের মতো পাঁচবারই শিরোপা নিজেদের মধ্যে ভাগ করে নিয়েছেন নোভাক জোকোভিচ ও অ্যান্ডি মারে। তবে রজার ফেদেরার, রাফায়েল নাদালরা চেনা ছন্দে ফিরে আসাতে মারে-জোকোভিচদের সেই রাজত্ব অটুট থাকার সম্ভাবনা এবার কমই বলতে হবে। বুড়ো হাড়ের ভেলিঙ্কতে ফেদেরার-নাদাল অবাক করেছেন ফ্রেঞ্চ ওপেন ও অস্ট্রেরিয়ান ওপেনে। মারে-জোকোভিচদের হটিয়ে গত অস্ট্রেলিয়া ওপেন ও ফ্রেঞ্চ ওপেনে শিরোপাও জিতেছেন ফেদেরার-নাদাল। সেই পারফরম্যান্স উইম্বলডনেও দেখা যেতে পারে।

অস্ট্রেলিয়া ওপেনে ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিলেন দুই মহাতারকা। তবে উইম্বলডনের ফাইনালে অবশ্য দুই মহাতারকার মুখোমুখি হওয়ার সম্ভাবনা অবশ্য নেই। তিনদিন আগে ড্র অনুষ্ঠিত হয়ে গেছে উইম্বলডনের। ড্র’র সমীকরণ বলছে ফাইনালের আগেই মুখোমুখি হচ্ছেন রজার ফেদেরার আর রাফায়েল নাদাল।

এদিকে গত ফ্রেঞ্চ ওপেনে খেলেননি সেরেনা। সন্তান সম্ভবা সেরেনা খেলছেন না উইম্বলডনও। আর রাশিয়ান গ্লামার কুইন মারিয়া শারাপোভা খেলতে পারছেন না ডোপ কেলেঙ্কারী ও ইনজুরির জেড় ধরে। ফ্রেঞ্চ ওপেনের মতো উইম্বলডনেরও খেলার সুযোগ পাননি শারাপোভা। সময়ের অন্যতম সেরা দুই তারকার অনুপস্থিতিতে উইম্বলডনে নারী এককের শিরোপা অনেকটাই উন্মুক্ত। সেরেনা-শারাপোভার অনুপস্থিতিতে র‌্যাঙ্কিংয়ের উপরের দিকে থাকা অ্যাঞ্জেলিনা কারবার, সিমোনা হালেপ, ক্যারোলিনা প্লিসকোভাদের ফেভারিট ধরবেন অনেকে। তবে এই ফেভারিটের বাইরে থেকেই যে কেউ এসে বাজিমাত করতে পারে ফ্রেঞ্চ ওপেনে সেরা দেখিয়ে দিয়েছেন লাটভিয়ার ইয়েলেনা আস্তাপেঙ্কো। সেরেনা-শারাপোভাদের অনুপস্থিতিতে অন্য শীর্ষদের দর্শক বানিয়ে শিরোপা জিতে নিয়েছিলেন তিনি।

Advertisement

কমেন্টস