ফেঁসে গেলেন মুশফিকের বাবা !

প্রকাশঃ মে ১৯, ২০১৭

বিডিমর্নিং স্পোর্টস ডেস্ক-

ছেলে যখন ত্রিদেশীয় সিরিজ নিয়ে আয়ারল্যান্ডে ব্যস্ত সময় পার করছেন। তখন দেশে বাবার বিরুদ্ধে উঠেছে অবৈধভাবে স্কুল প্রতিষ্ঠার অভিযোগ।বলছি বগুড়ায় জাতীয় ক্রিকেট দলের (টেস্ট) অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের বাবা মাহবুব হামিদের কথা।

বগুড়ায় ৪৭ বছরের প্রাচীন স্বনামধন্য এমপিওভুক্ত মাটিডালি উচ্চ বিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস, ভবন ও আসবাবপত্র ব্যবহার করে ‘বর্ণালি বিদ্যায়তন’ নামে ব্যক্তিগত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন মুশফিকের বাবা।আর এই বিষয়টি নিয়ে ইতোমধ্যে এলাকাবাসী দু’ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়েছেন। শুধু তাই নয়, এ নিয়ে দ্বন্দে¡র জের ধরেই স্কুলছাত্র মাসুক খুন হয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে।এই বিষয়ে সচেতন জনগণ এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট সবার কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন; অন্যথায় আরও অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটতে পারে বলে আশঙ্কা তাদের।

১৯৭০ সালে প্রতিষ্ঠিত মাটিডালি উচ্চ বিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ‘বর্ণালি বিদ্যায়তন’ নামে একটি ব্যক্তিগত প্রাথমিক বিদ্যালয়। কয়েক বছর আগে স্থাপিত এ বিদ্যালয়ে নার্সারি থেকে পঞ্চম শ্রেণী পর্যন্ত ছাত্রছাত্রীরা পড়াশোনা করে। এতে মাটিডালি উচ্চ বিদ্যালয়ের ভবন, ক্যাম্পাস, বেঞ্চ, চেয়ার, টেবিলসহ অন্যান্য আসবাবপত্র ব্যবহার করা হচ্ছে।
বিদ্যালয়ের দেয়ালে লাগানো বর্ণালি বিদ্যায়তনে শিক্ষার্থী ভর্তির ব্যানারে লেখা রয়েছে- ‘বাংলাদেশ টেস্ট ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের পৃষ্ঠপোষকতায় ও সুদক্ষ ম্যানেজিং কমিটি পরিচালিত।’ মাহবুব হামিদ তারা দুই প্রতিষ্ঠানেরই পরিচালনা কমিটির সভাপতি।

এই প্রসঙ্গে এ প্রসঙ্গে মাহবুব হামিদ তারা বলেন, নিয়মনীতি মেনেই বর্ণালি বিদ্যায়তন প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। কোনো অনিয়ম বা দুর্নীতি করা হয়নি। মাটিডালি উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক লাল মিয়া জানান, তিনি ২০১৪ সালে দায়িত্ব পেয়েছেন।

কমেন্টস